সুন্দরবনে তেল ছড়িয়ে পড়ায় জাতিসংঘের উদ্বেগ

0
154
sundarban
সুন্দরবনের শেলা নদীতে তেলবাহী জাহাজ ডুবির পর উভয়পাশে তেল ছড়িয়ে পড়ছে।

সুন্দরবনে তেলবাহী জাহাজ ডুবে তেল ছড়িয়ে পড়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে জাতিসংঘ। এ ঘটনায় ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নির্ণয়ে দ্রুত বাংলাদেশে অনুসন্ধানে আসতে পারে জাতিসংঘের উচ্চপর্যায়ের একটি প্রতিনিধিদল।

sundarban2
সুন্দরবনের শেলা নদীতে তেলবাহী জাহাজ ডুবির পর উভয়পাশে তেল ছড়িয়ে পড়ছে।

ওই এলাকাটি সরকার ঘোষিত ডলফিনের অভয়ারণ্য। জাহাজ থেকে নদীতে তেল ছড়িয়ে পড়ায় সেখানে এখন ডলফিন দেখা যাচ্ছে না। এছাড়া সুন্দরবন ইউনেসকোর বিশ্ব ঐতিহ্য এবং জাতিসংঘ ঘোষিত বিশ্বের গুরুত্বপূর্ণ জলাভূমি এটি। জাতিসংঘের ওই ২ সংস্থার নিয়ম অনুযায়ী, সুন্দরবনের ভেতর এ এলাকায় নৌযান চলাচল নিষিদ্ধ।

বিপর্যয়ের আশঙ্কায় বন কর্মকর্তাসহ প্রাণ-প্রতিবেশ বিশেষজ্ঞরা সুন্দরবনের ভেতরের এ নৌরুটটি বন্ধের দাবি জানালেও সেখানে অবাধে চলছে বিভিন্ন বাণিজ্যিক নৌযান।

গতকাল বুধবার পর্যন্ত জাহাজ উদ্ধার কিংবা দূষণ নিয়ন্ত্রণে তেল অপসারণের তৎপরতা তেমন দেখা যায়নি। ছড়িয়ে পড়া তেলের দূষণ নিয়ন্ত্রণ করতে গতকাল বুধবার বেলা ১ টার দিকে চট্টগ্রাম বন্দর থেকে রওনা হয়েছে কাণ্ডারি-১০। জাহাজটি আজ বৃহস্পতিবার সকালে দুর্ঘটনাস্থলে পৌঁছার কথা।

sundarban
সুন্দরবনের শেলা নদীতে তেলবাহী জাহাজ ডুবির পর উভয়পাশে তেল ছড়িয়ে পড়ছে।

গত মঙ্গলবার ভোররাত ৪টার দিকে বাগেরহাটের সুন্দরবনের শরণখোলা ও চাঁদপাই রেঞ্জের শেলা নদীর মৃগামারী এলাকায় নোঙরে থাকা তেলবাহী জাহাজ এম. টি সাউদার্ন ওটি-৭ আরেকটি তেলবাহী জাহাজের ধাক্কায় ডুবে যায়। জাহাজটিতে সাড়ে ৩ লাখ লিটার তেল ছিল। গতকাল বুধবার বিকেল পর্যন্ত ঘটনাস্থলের ২ দিকে অন্তত ৭০ কিলোমিটার এলাকায় তেল ছড়িয়েছে বলে বন বিভাগের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। রূপসা নদীতে পৌঁছে গেছে ফার্নেস অয়েল।

এই জাহাজ ডুবিতে দায়ী জাহাজ ২টির মালিকপক্ষের বিরুদ্ধে ১০০ কোটি টাকার ক্ষতিপূরণের মামলা করা হয়েছে। চাঁদপাই রেঞ্জের সহকারী বন সংরক্ষক বেলায়েত হোসেনকে প্রধান করে প্রাথমিকভাবে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

গতকাল বিকেলে ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে এ দুর্ঘটনার জন্য সরাসরি বিআইডব্লিউটিএকে দায়ী করেন পরিবেশ ও বন উপমন্ত্রী আবদুল্লাহ আল ইসলাম। তিনি বলেন, একাধিকবার নিষেধের পরও বিআইডব্লিউটিএ এই রুটে নৌ চলাচল অব্যাহত রাখায় এ ধরনের দুর্ঘটনা ঘটেছে। সুন্দরবনকে বাঁচাতে অবিলম্বে এ নৌ-রুট বন্ধে জোরালো উদ্যোগ নেওয়া হবে।

গতকাল বুধবার সচিবালয়ে নৌ পরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান জানিয়েছেন, জাহাজডুবির ঘটনায় ৩ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করেছে সরকার। সমুদ্র পরিবহন অধিদপ্তরের নটিক্যাল সার্ভেয়ার অ্যান্ড এক্সামিনার ক্যাপ্টেন গিয়াসউদ্দিন আহমেদকে কমিটির আহ্বায়ক করা হয়েছে। ১৫ কর্ম দিবসের মধ্যে কমিটিকে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

এমই/