পুত্র সন্তান জন্ম দেওয়ায় ঠিকানা যৌনপল্লী!

0
177
shonagasi
দুর্বার মহিলা সমিতির অফিসে সোনাগাছি থেকে উদ্ধার করা গৃহবধু
shonagasi
দুর্বার মহিলা সমিতির অফিসে সোনাগাছি থেকে উদ্ধার করা গৃহবধু

পর পর তিনবার পুত্র সন্তান জন্ম দেওয়ায় কোলকাতার এক গৃহবধূকে শ্বশুরবাড়ির লোকজন জোর করে সেখানকার সোনাগাছি যৌনপল্লীতে রেখে এসেছে।

ওই গৃহবধূর অভিযোগ, শ্বশুরবাড়ির লোকজন তার গর্ভে কন্যা সন্তান হবে বলে আশা করেছিলেন। তারা চেয়েছিলেন কন্যা সন্তান বড় হলে তাদের যৌন পেশায় নিয়োজিত করে উপার্জন করা যাবে। কিন্তু ৩য় বারও পুত্র সন্তানের জন্ম হওয়ায় তারা ক্ষুব্ধ হয়ে তাকে যৌনপল্লীতে রেখে আসে।

এক খবরে মঙ্গলবার বিবিসি জানিয়েছে, একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা তাকে সেখান থেকে উদ্ধার করে পুলিশে দেওয়ার পর এ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

কোলকাতার পুলিশ, স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা দুর্বার মহিলা সমন্বয় সমিতি এবং উদ্ধার পাওয়া গৃহবধূর কাছ থেকে এই চাঞ্চল্যকর কাহিনী জানা গেছে।

গৃহবধূ জানান, তার শ্বাশুড়ি এবং ননদসহ শ্বশুরবাড়ির অন্তত পাঁচ জন মহিলা যৌন পেশায় জড়িত। তবে বিয়ের আগ পর্যন্ত বিষয়টি স্বামী তার কাছে গোপন রেখেছিলেন। তাদের আদি বাড়ি মধ্যপ্রদেশের পান্না জেলায়। তবে বহু বছর ধরে কোলকাতাতেই থাকেন।

তিনি জানান, পর পর পুত্র সন্তানের জন্ম দিতে থাকায় শ্বশুর বাড়িতে তাকে নানা রকম নির্যাতন-লাঞ্ছনার শিকার হতে হয়। তের মাস আগে তৃতীয় বার পুত্র সন্তান হওয়ার পর এর মাত্রা আরও বেড়ে যায়।

কয়েকদিন আগে শ্বশুরবাড়ির লোকজন তাকে জোর করে কোলকাতার যৌনপল্লী সোনাগাছিতে রেখে আসে। সেখান থেকেই দুর্বার মহিলা সমিতি তাকে উদ্ধার করে।