অডিটের মান উন্নয়নে ঢাকায় আন্তর্জাতিক কর্মশালা শুরু

0
100
icat review workshop
‘আইসিএটি রিভিউ ওয়ার্কশপ’ শীর্ষক আন্তর্জাতিক কর্মশালায় (বাম থেকে ক্রমানুসারে) সেশন চিফ ক্যানটারো সাইটো, কম্পট্রোলার এন্ড অডিটর জেনারেল মাসুদ আহমেদ, হিসাব মহা নিয়ন্ত্রক মো. আবুল কাশেম এবং ইন্টোসাই ডেভোলপমেন্ট ইনিশিয়েটিভের প্রোগ্রাম ম্যানেজার জনাব মো. শফিকুল ইসলাম।

অডিটের মান উন্নয়নের লক্ষ্যে সোমবার রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে শুরু হয়েছে পাঁচ দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক কর্মশালা।

icat review workshop
‘আইসিএটি রিভিউ ওয়ার্কশপ’ শীর্ষক আন্তর্জাতিক কর্মশালায় (বাম থেকে ক্রমানুসারে) সেশন চিফ ক্যানটারো সাইটো, কম্পট্রোলার এন্ড অডিটর জেনারেল মাসুদ আহমেদ, হিসাব মহা নিয়ন্ত্রক মো. আবুল কাশেম এবং ইন্টোসাই ডেভেলপমেন্ট ইনিশিয়েটিভের প্রোগ্রাম ম্যানেজার মো. শফিকুল ইসলাম।

কম্পট্রোলার এন্ড অডিটর জেনারেল (সিএজি) মাসুদ আহমেদ সোমবার সকালে ‘আইসিএটি (আইএসএসএআই কমপ্লায়েন্স অ্যাসেসমেন্ট টুল) রিভিউ ওয়ার্কশপ’ শীর্ষক এ কর্মশালার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।

সুপ্রিম অডিট ইনস্টিটিউশনগুলোর বৈশ্বিক সংস্থা আইডিআই (ইন্টোসাই ডেভেলপমেন্ট ইনিশিয়েটিভ) এবং এএসওএসএআই (এশিয়ান অর্গানাইজেশন অব সুপ্রিম অডিট ইনস্টিটিউশন) যৌথভাবে এই কর্মশালার আয়োজন করেছে। এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে আছে সিএজি কার্যালয়।

উদ্বোধনী বক্তব্যে মাসুদ আহমেদ বলেন, কর্ম-অংশীদারদের প্রত্যাশা পূরণ, অডিটের সেবার আওতা এবং দায়িত্বশীলতা বৃদ্ধিতে আইএসএসএআই সহায়ক ভূমিকা পালন করবে। অডিট রিপোর্ট ও সেবার উন্নত মান, গ্রহণযোগ্যতা এবং পেশাদারিত্ব অর্জনে এর যথাযথ বাস্তবায়ন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

তিনি জানান, বাংলাদেশের সিএজি কার্যালয় ফিন্যান্সিয়াল অডিট, কমপ্লায়েন্স অডিট এবং পারফরমেন্স অডিটের ক্ষেত্রে আইএসএসএআই প্রয়োগের জন্য কৌশলগত পরিকল্পনা প্রণয়ন করেছে। ইতোমধ্যে একাধিক প্রকল্পের আওতায় দেশে ও দেশের বাইরে আইএসএসএআই প্রয়োজনীয়তা ও এর কার্যকারিতার উপর ব্যাপক প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষ জনবল তৈরির কাজ চলছে। এর ফলে বিশ্বের উন্নত সুপ্রিম অডিট ইনস্টিটিউশনসমূহের সাথে সামঞ্জস্য রেখে অডিটের গুণগত মান আরো বৃদ্ধি পাবে।

কর্মশালায় স্বাগত বক্তব্য উপস্থাপন করেন হিসাব মহা নিয়ন্ত্রক জনাব মো. আবুল কাশেম। আইডিআই’র প্রোগ্রাম ম্যানেজার মো. শফিকুল ইসলাম এবং এএসওএসএআই এর প্রশিক্ষণ প্রশাসক ক্যানটারো সাইটো প্রমুখ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

৬ জন আন্তর্জাতিক প্রশিক্ষকের অধীনে বাংলাদেশসহ এশিয়ার ১৩টি দেশের ৩২ জন প্রতিনিধি এতে অংশগ্রহণ গ্রহণ করছেন।

অডিট সম্পাদনকালে ইতোপূর্বে গৃহীত আইএসএসএআইসমূহ বাস্তবায়ন, বাস্তবায়ন কৌশল নির্ধারণ, বিশেষজ্ঞ মতামত এবং বিভিন্ন দেশের প্রতিনিধিদের পারস্পরিক মূল্যায়ন প্রভৃতি কার্যক্রম এ কর্মশালার প্রধান উদ্দেশ্য। আগামী ১২ ডিসেম্বর কর্মশালাটি সমাপ্ত হবে।

প্রসঙ্গত, ইন্টারন্যাশনাল অর্গানাইজশেন অব সুপ্রিম অডিট ইনস্টিটিউিশন্স ( ইন্টোসাই) এর পক্ষ হতে অডিটের মান নির্দেশনা ও বেস্ট প্রাকটিসসমূহ পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে সব দেশের জন্য অনুসরণীয় আইএসএসএআই (ইন্টারন্যাশনাল স্ট্যান্ডার্ডস অন সুপ্রিম অব অডিট ইনস্টিটিউিশন্স) প্রণয়ন করা হয়ে থাকে।