জরিমানার টাকা দিলেন বার্গম্যান

0
91
-bargman
ডেভিড বার্গম্যান-ফাইল ছবি
-bargman
ডেভিড বার্গম্যান-ফাইল ছবি

আদালত অবমাননার দায়ে সাজাপ্রাপ্ত ব্রিটিশ সাংবাদিক ডেভিড বার্গম্যান জরিমানার টাকা জমা দিয়েছেন।

আজ সোমবার বার্গম্যানের আইনজীবী ব্যারিস্টার মোস্তাফিজুর রহমান খানের সহকারী অ্যাডভোকেট পারভেজ এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, আদালতে অবস্থিত সোনালী ব্যাংকের ট্রেজারি শাখায় জরিমানার ৫ হাজার টাকা জমা দেওয়া হয়। এরপর আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের রেজিস্টারের কার্যালয়ে টাকা জমা দেওয়ার রশিদসহ চিঠি দিয়ে বিষয়টি জানানো হয়।

আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে বিচারাধীন বিষয় নিয়ে ব্যক্তিগত ব্লগে আপত্তিকর মন্তব্য করায় গত ২ ডিসেম্বর বার্গম্যানকে আদালত চলাকালীন পর্যন্ত কক্ষে অবস্থান ও ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। ৭দিনের মধ্যে এ জরিমানার টাকা জমা না দিলে ৭দিন কারাভোগ করতে হবে বলে আদেশ দেন আদালত।

ডেভিড বার্গম্যান বাংলাদেশে বসবাসরত একজন ব্রিটিশ নাগরিক। তিনি দেশের সংবিধানের অন্যতম প্রণেতা ড. কামাল হোসেনের জামাতা। ঢাকার একটি ইংরেজী দৈনিকে কাজ করেন তিনি।

ব্যক্তিগত ব্লগে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের বিচার কার্যক্রম নিয়ে সমালোচনা ও মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের সংখ্যা নিয়ে প্রশ্ন তোলায় গত ১৮ ফেব্রুয়ারি সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার

আবুল কালাম আজাদ সাংবাদিক বার্গম্যানের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগে ব্যবস্থা নিতে ট্রাইব্যুনালে আবেদন করেন। এরপর ১৭ এপ্রিল আদালত অবমাননার অভিযোগে নোটিশ জারি করেন ট্রাইব্যুনাল।

বার্গম্যানের লেখায় ট্রাইব্যুনালে মানবতাবিরোধী অপরাধে দণ্ডপ্রাপ্ত পলাতক আবুল কালাম আযাদ ওরফে বাচ্চু রাজাকারের রায় নিয়ে করা মন্তব্যে ট্রাইব্যুনালের মর্যাদাহানি হয়েছে বলেও আবেদনে অভিযোগ করা হয়।

সাংবাদিক বার্গম্যানের বিরুদ্ধে এর আগেও আদালত অবমাননার অভিযোগ উঠেছিল। ২০১১ সালের ১ অক্টোবর ইংরেজি পত্রিকা নিউ এজ-এ ‘অ্যা ক্রুসিয়াল পিরিয়ড ফর আইসিটি’ শিরোনামের প্রতিবেদনের জন্য ডেভিড বার্গম্যান, পত্রিকাটির সম্পাদক নুরুল কবির ও প্রকাশক আ স ম শহীদুল্লাহ খানের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগে রুল জারি করেন ট্রাইব্যুনাল-১। ২০১২ সালের ১৯ ফেব্রুয়ারি ওই রুল নিষ্পত্তি করে দেওয়ার আদেশে বার্গম্যানকে সর্বোচ্চ সতর্ক করে দিয়ে ট্রাইব্যুনাল বলেন, ওই প্রতিবেদনের একটি অংশ অত্যন্ত অবমাননাকর।

এএসএ/