কুষ্টিয়ায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ১

0
80
kustia
কুষ্টিয়া-ফাইল ছবি
kustia
কুষ্টিয়া-ফাইল ছবি

কুষ্টিয়ার মিরপুরে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ এনামুল হক (৩৫) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। পুলিশের দাবি,  নিহত ব্যক্তি একজন চরমপন্থি দলের সদস্য।

শনিবার রাত সাড়ে ৩টার দিকে উপজেলার ভাঙা বটতলায় শহিদুলের ইটভাটার কাছে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত এনামুল মিরপুরের মালিহাদ ইউনিয়নের আসাননগর গ্রামের রবিউল ইসলামের ছেলে।

মিরপুর থানার ওসি কাজী জালাল উদ্দিন জানান, নিহত এনামুল চরমপন্থি সংগঠন পূর্ববাংলা কমিউনিস্ট পার্টির (এমএল-জনযুদ্ধ) আঞ্চলিক নেতা।

তিনি বলেন, চরমপন্থিরা শহিদুলের ইটভাটায় চাঁদা নিতে আসছে খবর পেয়ে মিরপুর থানা ও জেলা গোয়েন্দা পুলিশের একটি যৌথ দল সেখানে অবস্থান নেয়। ৭-৮ জন ‘চরমপন্থি’ সেখানে পৌঁছালে পুলিশ তাদের ঘিরে ফেলে। এ সময় চরমপন্থি সদস্যরা পুলিশের দিকে গুলি ছুড়লে পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়।

আধা ঘণ্টা বন্দুকযুদ্ধের পর চরমপন্থিরা পিছু হটে পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থলে তল্লাশি চালিয়ে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় এনামুলকে পাওয়া যায়। তাকে মিরপুর স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ সময় ঘটনাস্থল থেকে একটি শাটারগান ও ৪টি গুলি উদ্ধার করা হয়েছে বলেও জানান ওসি।

কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সোহেল রেজা বলেন, এনামুল দীর্ঘদিন পলাতক থাকলেও সম্প্রতি ফিরে এসে দল গোছাতে শুরু করে। গত কিছুদিন ধরে তার চাঁদাবাজির খবর পাওয়া যাচ্ছিল।

এনামুলের বিরুদ্ধে কুষ্টিয়া, মেহেরপুর, চুয়াডাঙ্গা ও আলমডাঙ্গার বিভিন্ন থানায় ৭টি হত্যাসহ বিভিন্ন অভিযোগে ২৪টি মামলা রয়েছে। এর মধ্যে ২টি মামলায় তিনি ২৪ বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামি বলেও জানান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার।

এএসএ/