‘হাসিনা-খালেদাকে বিপর্যয়ে পড়তে হবে’

0
124
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া
hasina-khaleda
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিএনপির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া- ফাইল ছবি

কেউ ভুলত্রুটির ঊর্ধ্বে নয়। শুধু বিএনপির খালেদা জিয়া আর আওয়ামী লীগের শেখ হাসিনা সব ভুলত্রুটির ঊর্ধ্বে। একদিন এই দুজনকে সামাজিক বিপর্যয়ের মধ্যে পড়তে হবে।

শুক্রবার সন্ধ্যায় এক আলোচনা সভায় প্রাক্তন ছাত্রলীগ ফাউন্ডেশনের আহ্বায়ক নূরে-আলম ছিদ্দিকী এসব কথা বলেন।

হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে জাতীয় প্রেসক্লাবে কনফারেন্স লাউঞ্জে প্রাক্তন ছাত্রলীগ ফাউন্ডেশন এ আলোচনা সভার আয়োজন করে।

দুর্নীতির বিরুদ্ধে সরকার কোনো কার্যকর ব্যবস্থা নিচ্ছে না- এমন অভিযোগ করে নূরে আলম বলেন, ক্ষমতাসীন দলের ৬২টি অংঙ্গসংগঠনের মতো দুর্নীতি দমন কমিশন- দুদকও একটি সংগঠনে পরিণত হয়েছে।

তিনি বলেন, দেশে আজ অসহনশীল প্রতিহিংসাপরায়ণ রাজনীতি চলছে। দুর্নীতির আবর্জনায় দেশের প্রধান দুই রাজনীতিক দল পরিচালিত হচ্ছে। তাই ছাত্র রাজনীতিও এই আবর্জনা থেকে মুক্ত হতে পারছে না।

নূরে-আলম বলেন, দুদক আওয়ামী লীগের নেতাদের সব দুর্নীতির মামলা প্রত্যাহার করেছে। এক্ষেত্রে বিএনপির দুয়েকটি মামলা প্রত্যাহার করলে দুদককে কিছুটা হলেও নিরপেক্ষ বলা যেত।

তিনি বলেন, শতকরা ৮০ জন সাংসদ সংসদের কার্যবিধি জানেন না। তারা শুধু শেখ হাসিনার স্তুতি করতে জানেন।

নাগরিক ঐক্যের মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, শেখ হাসিনাকে এখন গণতন্ত্রের মানষকন্যা বলা হয়। সেই গণতন্ত্রের মানষকন্যা আজ ক্ষমতায়; কিন্তু গণতন্ত্র কই?

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ তাদের গোত্রের বাইরে কাউকে স্বীকৃতি দেয় না। কার কতখানি অবদান তাও মূল্যায়িত করে না। বাঙ্গালী জাতি একদিন সঠিক ইতিহাস রচনা করবে। আর সেই দায়িত্ব নিতে হবে প্রাক্তন ছাত্রলীগ ফাউন্ডেশনকে।

সভায় নূরে-আলম ছিদ্দিকীর সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য দেন প্রাক্তন ছাত্রনেতা আবুল কাশেম, আবুল হাসান চৌধুরী, মোস্তাফিজুর রহমান, পীর হাবিবুর রহমান প্রমুখ।

এমআই/