‘শুধু আমার মানিককে ফিরে পেতে চাই’

0
96
image3
গুম হওয়া ব্যক্তিদের ফিরে পেতে প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন করেন তাদের স্বজনেরা।

‘এক বছর হয়ে গেছে আমার মানিককে এখনও ফিরে পাইনি। আল্লাহর কাছে আমার কিছুই চাওয়ার নাই। শুধু আমার মানিককে ফিরে পেতে চাই।’

এভাবেই কান্নাজড়িত কন্ঠে কথাগুলো বলছিলেন রাজধানীর ৩৮ নং ওয়ার্ড বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সাজেদুল ইসলাম সুমনের মা হাজেরা খাতুন।

গত বছরের ৪ ডিসেম্বর র‌্যাব পরিচয়ে রাজধানীর ভাটার এলাকা থেকে সুমনকে তুলে নিয়ে যায়। এরপর তার আর খোঁজ মেলেনি।

শুধু হাজেরা খাতুন নয় গত বছরের ৪ ডিসেম্বর গুম হওয়া ৮ ব্যক্তির পরিবারের সদস্যদের উপস্থিত সবার চোখ ছিল অশ্রুশিক্ত।

বৃহস্পতিবার বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে জাতীয় মানবাধিকার সমিতি আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে গুম হওয়া ৮ ব্যক্তির পরিবারের সবাই তাদের স্বজনদের ফেরে পেতে হাজেরা খাতুনের মতোই আকুতি জানান।

গুম হওয়া আবদুল কাদের ভূইয়া মাসুমের মা আয়েশা আক্তার বলেন, ‘১৬ ডিসেম্বর আমার ছেলে মাসুমের জন্ম দিন ছিল। সে বলেছিল মা বড় হয়ে তোমার দায়িত্ব কিন্তু আমিই নেব’।

তিনি বলেন, ‘আজ আমার সন্তানের কোনো খোঁজ পাচ্ছি না। একটু আমার বাবার খোঁজ দিন। আমি আশায় আছি আমার সোনার ধন ফিরে আসবে’।

গুম হওয়া আরেক ব্যক্তি জাহিদুল করিম তানভীরের মা নিলুফা বেগম বলেন, ‘আমার ছেলে লেবার মিস্ত্রির টাকা দিতে গিয়ে আর ফিরে আসে নাই। আমি সবার কাছে দাবি জানাই আমার ছেলেকে ফিরিয়ে দেন, ফিরিয়ে দেন’।

বাবা মায়ের সামনে থেকে আদনান চৌধুরীকে তুলে নিয়ে যায় র‌্যাব। আদনানের বাবা রুহুল আমীন বলেন, ‘ভেবেছিলাম র‌্যাব যখন নিয়ে গিয়েছে তখন ছেলে ফিরে আসবে। কিন্তু কই ছেলেতো আর ফিরে আসল না। বিশ্বাসঘাতক সেই কালো পোশাকধারী র‌্যাব সদস্যদের  বিচার দাবি করছি।’

এ রকম কারো ভাই, কারো ছেলে, আবার কেউ তার পিতার সন্ধান পেতে এসছিলেন প্রেসক্লাবের এই সংবাদ সম্মেলনে ।

এ সময় সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না,মৌলিক অধিকার সংরক্ষন কমিটির আহ্বায়ক জাকির হোসন, আয়োজক সংগঠনের মহাসচিব মঞ্জুর হোসেন ঈসা প্রমুখ।

উল্লেখ, ২০১৩ সালের ৪ ডিসেম্বর একই দিনে পৃথক পৃথক জায়গা থেকে সাজেদুল ইসলাম সুমন, জাহেদুল করিম তানভীর, আব্দুল কাদের ভুইয়া মাসুম, মাজহারুল ইসলাম রাসেল, আসাদুজ্জামান রানা, এ এম আদনান চৌধুরী, কাউসার আহমেদ ও আল আমিন গুম হন।

এমআই/