‘ক্রয় কমিটির সভায় উঠছে এলএনজি টার্মিনাল প্রকল্প’

0
93
tofail
বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ (ফাইল ছবি)
tofail
বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ (ফাইল ছবি)

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ জানিয়েছেন, গ্যাস সংকট উত্তরণে শিগগির কাতার থেকে এলএনজি (তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস) আমদানি করা হবে। এজন্য বঙ্গোপসাগরে ভাসমান এলএনজি টার্মিনাল বাস্তবায়নে যন্ত্রপাতি আমদানির লক্ষ্যে প্রকল্পটি পরবর্তী ক্রয় সংক্রান্ত কমিটির সভায় উত্থাপন করা হবে।

বুধবার দুপুরে চট্টগ্রাম নগরীর হালিশহর আবাহনী মাঠে মাসব্যাপী আন্তর্জাতিক বাণিজ্য ও রপ্তানি মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা জানান।

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ (সিএমসিসিআই) আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে মন্ত্রী বলেন, ভাসমান এলএনজি টার্মিনালটির ধারণ ক্ষমতা হবে ৩ দশমিক ৫ মিলিয়ন টন। প্রতিদিন ৫০০ মিলিয়ন ঘনফুট এলএনজি কাতার থেকে আমদানি করা হবে।

এর মাধ্যমে দেশের চলমান গ্যাস সংকট নিরসনসহ নতুন নতুন শিল্প কারখানা স্থাপন ও বিনিয়োগ বৃদ্ধি পাবে বলেও জানান তিনি।

মন্ত্রী বলেন, চট্টগ্রামকে কার্যকর বাণিজ্য নগরী হিসাবে গড়ে তুলতে কক্সবাজার মহেশখালী মাতার বাড়িতে ৩৬ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে কয়লা ভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র এবং চট্টগ্রামের মিরসরাইসহ চারটি স্থানে ‘বিশেষ অর্থনৈতিক এলাকা’ গড়ে তোলা হবে। সেই সঙ্গে চীনের অর্থায়নে চট্টগ্রামে ১ দশমিক ৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার ব্যয়ে একটি রিফাইনারি নির্মাণ করা হবে ।

এছাড়াও কক্সবাজার পর্যন্ত রেললাইন স্থাপন, ঢাক-চট্টগ্রাম হাইওয়ে সম্প্রসারণ, কর্ণফুলী টানেল নির্মাণসহ আগামী চার বছরে সরকারের নানা ধরনের উদ্যোগের কথাও জানান তিনি।

সিএমসিসিআই সভাপতি খলিলুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ভূমি প্রতিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ, সাংসদ ড. আফছারুল আমিন, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র এ.বি.এম. মহিউদ্দীন চৌধুরী, চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক এম এ ছালাম প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে খলিলুর রহমান বলেন, বিদেশী বিনিয়োগকারী কর অবকাশসহ বিশেষ সুযোগ সুবিধা ভোগ করে, যা দেশীয় উদ্যোক্তাদের বেলায় প্রযোজ্য হয় না। ফলে অসম প্রতিযোগিতায় স্থানীয় শিল্প অনেক সময় অস্তিত্ব রক্ষার সংকটে পড়ে। তার মধ্যে জ্বালানি সংকট, অবকাঠামোগত দুর্বলতা, উচ্চ হারে ব্যাংক ঋণ এর সুদ সহ নানা সীমাবন্ধতা রয়েছে। স্থানীয় শিল্পকে নিরুৎসাহিত করা হলে দেশে কর্মসংস্থান বৃদ্ধি সম্ভব নয়।