নারায়ণগঞ্জে ৭ খুন: চাকরিচ্যুত র‌্যাব সদস্য গ্রেপ্তার

0
158
narayangong
ছবি সংগৃহীত
narayangong
ফাইল ছবি

নারায়নগঞ্জে ৭ খুনের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে মাগুরা শহরের কাজী টাওয়ার থেকে আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নুরুজ্জামান নামে এক র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) চাকরিচ্যুত এক সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

তিনি মাগুরা সদর উপজেলার হাজিপুর গ্রামের মুজিবুর রহমানের ছেলে।

খুনের ঘটনার পর তিনি চাকরিচ্যুত হয়ে গ্রামের বাড়ি হাজিপুরে অবস্থান করছিলেন।

মাগুরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম জানান, নারায়ণগঞ্জের গোয়েন্দা ও সদর থানা পুলিশ আজ সন্ধ্যা ৭টার দিকে মাগুরায় শহরের কাজী টাওয়ার মার্কেট থেকে নুরুজ্জামানকে আটক করে। পরে সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টার দিকে পুলিশ তাকে নিয়ে নারায়ণগঞ্জের উদ্দেশে রওনা হয়।

নারায়ণগঞ্জের গোয়েন্দা পুলিশের ওসি ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মামুনুর রশীদ জানান, নুরুজ্জামান ৭ খুনের ঘটনায় জড়িত বলে অন্য আসামিরা স্বীকারোক্তিতে বলেছেন।

গ্রেপ্তার র‌্যাব সদস্য নুরুজ্জামানের বড় ভাই জসিমউদ্দিন মৃধা জানান, নারায়ণগঞ্জে ৭ খুনের ঘটনার ১৫ দিন আগে সেনা বাহিনী থেকে নুরুজ্জামান র‌্যাব-১১ সিপিসি-১ এ যোগ দিয়ে নারায়ণগঞ্জ যান। পরে খুনের ঘটনার পর তিনি চাকরিচ্যুত হয়ে বাড়ি ফিরে আসেন।

এর আগে আজ মঙ্গলবার সকালে ৭ খুনের মামলায় ৩ র‌্যাব সদস্যকে গ্রেফতার করে গোয়েন্দা পুলিশ। এ নিয়ে র‌্যাব কর্মকর্তা ও সদস্যসহ ১৮ জন এ মামলায় গ্রেপ্তার হলেন।

গত ২৭ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের প্যানেল মেয়র নজরুল ইসলাম, তার বন্ধু মনিরুজ্জামান স্বপন, তাজুল ইসলাম, লিটন, গাড়িচালক জাহাঙ্গীর আলম, আইনজীবী চন্দন কুমার সরকার ও তার গাড়িচালক ইব্রাহীম অপহৃত হন। পরে শীতলক্ষ্যা নদী থেকে ৩০ এপ্রিল ৬ জনের ও ১ মে একজনের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় ফতুল্লা মডেল থানায় নিহত প্যানেল মেয়র নজরুল ইসলামের স্ত্রী সেলিনা ইসলাম বিউটি ও নিহত আইনজীবী চন্দন সরকারের জামাতা ডা. বিজয় কুমার পাল বাদী হয়ে দুটি মামলা করেন।

মামলায় এ পর্যন্ত র‌্যাবের সাবেক তিন কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট কর্নেল তারেক সাঈদ মোহাম্মদ, মেজর আরিফ হোসেন ও লেফটেন্যান্ট কমান্ডার এমএম রানাসহ ২৭ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এর মধ্যে ১৪ জন র‌্যাব সদস্য হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। আর ১১ জন র‌্যাব সদস্যসহ ১৬ জন সাক্ষী হিসেবে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন।