‘নতুন এলাকায় গ্যাস সংযোগ নয়’

নিজস্ব প্রতিবেদক

0
73
Toufiq_e_Elahi
শনিবার ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজ (ডিসিসিআই) কর্যালয়ে ‘জ্বালানি খাতের উন্নয়ন: গ্রাহকদের নির্ভরযোগ্য বিদ্যুৎ সরবরাহ’ শীর্ষক এক সেমিনারের আয়োজন করা হয়।

নতুন এলাকায় আর কোনো গ্যাস সংযোগ দেওয়া হবে না বলে জানিয়েছেন বিদ্যুৎ ও জ্বালানি বিষয়ক উপদেষ্টা তৌফিক-ই-এলাহী চৌধুরী।

শনিবার ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজ (ডিসিসিআই) কর্যালয়ে ‘জ্বালানি খাতের উন্নয়ন: গ্রাহকদের নির্ভরযোগ্য বিদ্যুৎ সরবরাহ’ শীর্ষক এক সেমিনারে তিনি এ কথা জানান।

তৌফিক-এ-এলাহী চৌধুরী বলেন, যে সব এলাকায় গ্যাসের সংযোগ নেই; সেসব এলাকায় আর নতুন সংযোগ দেওয়া হবে না।

তিনি বলেন, আমাদের গ্যাসের মজুত সীমিত। প্রতিবেশী দেশ থেকে আমদানি করতে হলে তা অনেক সময় লেগে যাবে। তাই কম গ্যাস ব্যবহার করে বেশি বিদ্যুৎ উৎপাদন করার কৌশল উদ্ভাবন করতে হবে।

জ্বালানি উপদেষ্টা আরও বলেন, দেশের সমুদ্রসীমায় গ্যাস পাওয়া গেলেও তা ব্যবহার উপযোগী করতে ১০ বছরেরও বেশি সময় লেগে যাবে। তাই এখন ভারত থেকে বিদ্যুৎ আনা হচ্ছে। মিয়ানমার, নেপাল ও ভূটান থেকে বিদ্যুৎ আনার চেষ্টা করা হচ্ছে।

কিভাবে শিল্পাঞ্চলগুলোতে নিরবিচ্ছিন্ন জ্বালানি দিতে পারি তা নিয়ে আলোচনা হচ্ছে। তবে দেশের যেখানে অর্থনৈতিক এলাকা গড়ে তোলা হচ্ছে; সেখানে নিরবিচ্ছিন্ন জ্বালানি সরবরাহ করা হবে- যোগ করেন তিনি। এসময় নতুন নতুন শিল্প এলাকায় কারখানা স্থাপনে ব্যবসায়ীদের প্রতি আহ্বান জানানো হয়।

সেমিনারে ব্যবসায়ীরা বলেন, গ্যাস ও বিদ্যুতের পর্যাপ্ত সরবরাহ না থাকায় অনেক কারখানায় উৎপাদন ব্যাহত হচ্ছে। নতুন নতুন শিল্প পার্ক গড়ে উঠলে সেখানে আরও জ্বালানির প্রয়োজন হবে। এর জন্য শিগগিরই বিকল্প ব্যবস্থা নেওয়া দরকার বলে মত দেন তারা।

সেমিনারের মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ডিসিসিআই সাবেক সভাপতি এএসএম আলমগীর কবির। তিনি দেশের জ্বালানি খাতের এখনকার অবস্থা তুলে ধরেন। জ্বালানি খাতের উন্নয়নের জন্য বিভিন্ন সমস্যা ও চ্যালেঞ্জের কথাও তুলেন ধরেন।

সেমিনারে সভাপতির বক্তব্যে হোসেন খালেদ বলেন, যদি সরকার ব্যবসায়ীদের গ্যাস ও বিদ্যুৎ দিয়ে পর্যাপ্ত সহযোগিতা করতে পারে তাহলে শিগগিরই বিশ্বের ৩০তম অর্থনীতির দেশে পরিণত হতে পারবে বাংলাদেশ।

সেমিনারে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের প্রধান সচিব মো. আবুল কালাম আজাদ, বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের ইঞ্জিনিয়ার মিজানুর রহমান সহ ডিসিসিআই সাবেক সভাপতি, বোর্ড সদস্য প্রমুখ।