প্রধানমন্ত্রী মালয়েশিয়ায়

0
93
PM to malaysia
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মঙ্গলবার মালয়েশিয়া যাওয়ার প্রাক্কালে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে তাকে বিদায় জানান অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত, বাণিজ্য মন্ত্রী তোফায়েল আহমদ, মন্ত্রিপরিষদ সচিব, তিন বাহিনীর প্রধান ও পুলিশের মহা পরির্দশক প্রমুখ।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুর পৌঁছেছেন।

তাকে বহনকারী বিমানটি মঙ্গলবার স্থানীয় সময় বিকেল ৩টা ৫৫ মিনিটে কুয়ালালামপুর আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে।

PM to malaysia
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মঙ্গলবার মালয়েশিয়া যাওয়ার প্রাক্কালে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে তাকে বিদায় জানান অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত, বাণিজ্য মন্ত্রী তোফায়েল আহমদ, মন্ত্রিপরিষদ সচিব, তিন বাহিনীর প্রধান ও পুলিশের মহা পরির্দশক প্রমুখ।

এ সময় মালয়েশিয়ার মানবসম্পদ বিষয়ক উপমন্ত্রী হাজি ইসমাইল হাজি আবদুল মুত্তালিব ও মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশের হাইকমিশনার একেএম আতিকুর রহমান প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানান।

বিমানবন্দরে অবতরণের পর মালয়েশিয়ার শেখ হাসিনাকে গার্ড অব অনার প্রদান করা হয়। তাকে কুয়ালালামপুরের আল হায়াত হোটেলে নিয়ে যাওয়া হয়।

এর আগে মঙ্গলবার সকাল সোয়া ১০টায় শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে কুয়ালালামপুরের উদ্দেশ্যে রওনা হন তিনি।

শেখ হাসিনার এই সফরে দু’দেশের মধ্যে চারটি চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই হতে পারে।

প্রধানমন্ত্রীর প্রেস উইং থেকে জানানো হয়েছে, মঙ্গলবার রাতে মালয়েশিয়া প্রবাসী বাংলাদেশিদের একটি দল প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করবেন। পরদিন সকালে তিনি বাংলাদেশের ব্যবসা ও বিনিয়োগ সম্ভাবনা নিয়ে আয়োজিত একটি সংলাপে অংশ নেবেন।

এরপর পুত্রাজায়াতে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় পারদানা স্কোয়ারে দুই দেশের প্রধানমন্ত্রীর দ্বিপক্ষীয় বৈঠক হবে। সেখানেই চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই হওয়ার কথা রয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী হিসেবে আছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন, বেসামরিক বিমান চলাচল মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন, সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর, স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব আবুল কালাম আজাদ, পররাষ্ট্র সচিব শহিদুল হক, প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী ও প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব এ কে এম শামীম চৌধুরী।

এছাড়া এফবিসিসিআই সভাপতি কাজী আকরাম উদ্দিন আহমদের নেতৃত্বে ব্যবসায়ীদের একটি প্রতিনিধি দলও প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে মালয়েশিয়া সফরে রয়েছেন।

সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী জানান, জনশক্তি রপ্তানি বাড়ানো এবং পণ্য রপ্তানি বাড়িয়ে মালয়েশিয়ার সঙ্গে বাণিজ্য বৈষম্য কমানোর ওপর জোর দেওয়া হবে এই সফরে।

তিনি জানান, প্রধানমন্ত্রীর সফরে চারটি চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই হতে পারে। এর মধ্যে মানব সম্পদ রপ্তানি নিয়ে একটি সমঝোতা স্মারক রয়েছে, যা দেশটির সারাওয়াক প্রদেশে ১২ হাজার বাংলাদেশির কাজের সুযোগ করে দেবে।

পর্যটন ও সংস্কৃতি বিষয়ক সহযোগিতা নিয়েও দুটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হতে পারে প্রধানমন্ত্রীর এই সফরে। এছাড়া ভিসা প্রক্রিয়া সহজ করার বিষয়ে একটি চুক্তি হতে পারে।

সফরে শেষে প্রধানমন্ত্রী বৃহস্পতিবার ঢাকা ফিরবেন।