পালাটানার দ্বিতীয় ইউনিট চালু, বিদ্যুৎ পাবে বাংলাদেশ

0
72
National-Grid
জাতীয় বিদ্যুৎ গ্রিড-ফাইল ফটো
power_plant
ছবি: সংগৃহীত

ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য ত্রিপুরার পালাটানাতে সোমবার বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্রের দ্বিতীয় ইউনিটের উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, যেখানকার উৎপাদনের একটা বড় অংশ পাঠানো হবে বাংলাদেশে।

পালাটানা বিদ্যুৎ কেন্দ্রের দুটি ইউনিটের মোট উৎপাদন ক্ষমতা ৭২৬ মেগাওয়াট। ত্রিপুরা সরকার নিশ্চিত করে জানিয়েছে, এর মধ্যে বাংলাদেশের কাছে শুরুতে ১০০ মেগাওয়াট ও পরে ক্রমান্বয়ে সেটা বাড়িয়ে ২৫০ মেগাওয়াট পর্যন্ত বিদ্যুৎ বিক্রি করা সম্ভব হবে।

ত্রিপুরা রাজ্যের বিদ্যুৎমন্ত্রী মানিক দে জানিয়েছেন, আপাতত পালাটানার প্রথম ইউনিটের পুরো উৎপাদনটাই ত্রিপুরাসহ উত্তর-পূর্বাঞ্চলের অন্যান্য রাজ্যের কাজে লেগে যাচ্ছে।

কিন্তু দ্বিতীয় ইউনিটের উৎপাদন শুরু হলে তার অনেকটাই উদ্বৃত্ত থেকে যাবে, যেটা তারা বাংলাদেশকে বিক্রি করতে চান।

এর জন্য ত্রিপুরা রাজ্যের সূর্যমনিনগরে ইতিমধ্যেই যে বিদ্যুৎ গ্রিড স্থাপন করা হয়েছে, তার সঙ্গে বাংলাদেশের কুমিল্লা জেলায় বিদ্যুৎ গ্রিডের সংযোগ স্থাপন করতে হবে।

আর এই পরিকল্পনা নিয়ে ইতিমধ্যেই দুদেশের মধ্যে আলোচনা শুরু হয়ে গেছে।

পালাটানায় প্রধানমন্ত্রী মোদী যখন দ্বিতীয় ইউনিটের উদ্বোধন করেন, তখন সেখানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর জ্বালানি-বিষয়ক বিশেষ উপদেষ্টা তৌফিক ই ইলাহী চৌধুরী এবং জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ।

ভারতের সমগ্র উত্তর-পূর্বাঞ্চলে সবচেয়ে বড় বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র হল পালাটানা, আর ত্রিপুরাতে এই কেন্দ্রটি স্থাপন করার পেছনে বাংলাদেশের বড় ভূমিকা ছিল।

কেন্দ্রটি স্থাপনের জন্য যাবতীয় ভারী সরঞ্জাম পাঠানো হয়েছিল বাংলাদেশের আশুগঞ্জ নদীবন্দর হয়েই, ঢাকা যে অনুমতি না-দিলে ওই সব যন্ত্রপাতি ও সরঞ্জাম দুর্গম ত্রিপুরাতে পাঠানো অনেক কঠিন হয়ে পড়ত।

সূত্র: বিবিসি