‘দখলদারদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে রাজউক’

0
225
joynal-abedin-bhuiyan-chairman-rajuk
রাজউকের চেয়ারম্যান প্রকৌশলী জিএম জয়নাল আবেদিন ভূঁইয়া (ফাইল ছবি)
joynal-abedin-bhuiyan-chairman-rajuk
রাজউকের চেয়ারম্যান প্রকৌশলী জিএম জয়নাল আবেদিন ভূঁইয়া (ফাইল ছবি)

কৃষি ও খাসজমি এবং জলাশায় দখলকারীদের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) চেয়ারম্যান প্রকৌশলী জিএম জয়নাল আবেদিন ভূঁইয়া।

শনিবার দুপুরে ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজ (ডিসিসিআই) আয়োজিত ‘জনস্বার্থে গৃহনির্মাণ’ শীর্ষক সেমিনারে তিনি এ কথা জানান।

জয়নাল আবেদিন ভূঁইয়া বলেন, নগরীতে যেসব ডেভেলপার কোম্পানি কৃষি ও খাসজমি এবং জলাশয় দখল করে ভবন নির্মাণ করছেন তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিবে রাজউক।

একই সঙ্গে রাজউক অনুমোদিত নকশা অনুযায়ী যারা বাড়ি নির্মাণ করবে না তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

রাজউক চেয়ারম্যান বলেন, পুরান ঢাকায় কিছু ঝুঁকিপূর্ণ ভবন আছে। উচ্চমাত্রায় ভূমিকম্প হলে এসব ভবনে বসবাসকারীরা মারাত্মক ক্ষতির সম্মুখীন হবেন। তাই ওই এলাকায় ঝুঁকিপূর্ণ কিছু ভবন ভেঙ্গে ফেলতে হবে। এ বিষয়ে পুরান ঢাকাবাসীকে এগিয়ে আসতে হবে।

এ সময় নিম্নবিত্তদের আবাসন সমস্যা সমাধানে সরকারের পাশাপাশি রিহ্যাবকেও এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি।

রিহ্যাবের ২১ হাজার ফ্ল্যাট এখনও অবিক্রিত রয়ে গেছে জানিয়ে সংগঠনটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি লিয়াকত আলী ভূঁইয়া বলেন, এসব ফ্ল্যাট বিক্রির জন্য সিঙ্গেল ডিজিটে ঋণ দিতে হবে। এ বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।

সেমিনারে ‘অর্থনৈতিক উন্নয়নে আবাসন খাতের ভূমিকা এবং এ খাতের সমস্যা ও সম্ভাবনা’ শীর্ষক মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ফ্যাকাল্টি মেম্বার অর্থনীতিবিদ ড. নুরুল আমিন।

ডিসিসিআই’র সভাপতি মোহাম্মদ শাহজাহান খানের সভাপতিত্বে সেমিনারে আরও বক্তব্য রাখেন গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর মো. আবুল কাশেম এবং রিহ্যাবের প্রতিনিধিরা।

জেইউ/এসবি