আমরা নির্দোষ: বীনা

0
85
Veena_Malik
বীনা মালিক-ফাইল ছবি

ধর্ম অবমাননার অভিযোগে অভিনেত্রী বীনা মালিক, তার স্বামী আসাদ বশিরসহ ৪ জনকে ২৬ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে পাকিস্তানের সন্ত্রাসবিরোধী আদালত। এ খবরে খুবই মর্মাহত বীনা। তিনি বলেন, আমরা নির্দোষ।

বর্তমানে দুবাইয়ে অবস্থানরত পাকিস্তানি এ অভিনেত্রী জানান, এটা তার জন্য দুঃসংবাদ।

তিনি বলেন, আমরা মুসলমান পরিবারে জন্মেছি এবং আমরা কখনোই কোনো ভুল করতে পারি না। আমরা নির্দোষ। তাই পাকিস্তানে ফিরে মামলাটির মুখোমুখি হব।

বীনা বলেন, টেলিভিশনের প্রচারিত কোনো বিষয়কে নিয়ন্ত্রণ করার ক্ষমতা আমাদের নেই। আমরা কেবল শো-এর একটা অংশ ছিলাম মাত্র। এটা কোনোভাবেই ব্লাসফেমি নয়। এর কোনো সত্যতাও নেই।

তিনি আরও বলেন, আমি সবে সি-সেকশন (সিজার) করেছি এবং ডাক্তার আমাকে ৩ মাসের বিশ্রাম নিতে বলেছেন। ফিট হলেই আমরা ডিসেম্বরের মধ্যেই পাকিস্তানে ফিরবো।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার বীনা মালিক ও তার স্বামী আসাদ বশির, অনুষ্ঠান সঞ্চালক শায়েস্তা লোদিসহ জং গ্রুপের টিভি চ্যানেল জিয়ো টিভির মালিক মীর শাকিলুর রেহমানকে ২৬ বছরের কারাদণ্ড দেন গিলগিটের সন্ত্রাসবিরোধী আদালতের বিচারক রাজা শাহবাজ।

কারাদণ্ডের পাশাপাশি ৪ আসামির প্রত্যেককে ১৩ লাখ রুপি করে জরিমানা করা হয়েছে। তারা আত্মসমর্পণ না করলে তাদের সম্পত্তি জব্দের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে পুলিশকে।

পাকিস্তানের আহলে সুন্নত ওয়াল জামাতের গিলগিট-বালতিস্তান শাখার ভাইস প্রেসিডেন্ট হেমায়েতুল্লাহ খান গত ২৬ মে এই মামলা দায়ের করেন। তার অভিযোগ ছিল, জিয়ো টিভির সকালের অনুষ্ঠান ‘জেগে ওঠো পাকিস্তান’- এ প্রচারিত একটি কাওয়ালিতে আহলে বাইয়াতের অবমাননা করা হয়েছে। ওই অনুষ্ঠানের সেদিনের বিষয় ছিল অভিনেত্রী ভিনা মালিকের বিয়ে।

ওই অনুষ্ঠান প্রচারের পর পাকিস্তানের বিভিন্ন শহরে এই জিয়ো টিভি কর্তৃপক্ষসহ ৪জনের বিরুদ্ধে অন্তত ১০টি মামলা হয়।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

এএসএ/