যুক্তরাষ্ট্রে ইবোলা প্রতিরোধক টিকার ‘সফল পরীক্ষা’

0
88
Ebola vaccine
ইবোলা প্রতিরোধক টিকা নিচ্ছেন ২৯ বছর বয়সী এক নারী।

মানবদেহে ইবোলা প্রতিরোধক টিকার পরীক্ষায় সফলতা পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছেন একদল গবেষক।

যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব হেলথ বলছে, তাদের গবেষণাগারে ২০ জনের দেহে এই টিকার পরীক্ষা বা ট্রায়াল করা হয়েছে। টিকা দেওয়ার পর তাদের ইবোলা ভাইরাস আক্রান্ত হয়নি। তাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বেড়েছে।

Ebola vaccine
ইবোলা প্রতিরোধক টিকা নিচ্ছেন ২৯ বছর বয়সী এক নারী।

গবেষকরা বলছেন, এই প্রতিষেধক টিকাটি মানুষের জন্য নিরাপদ। এর ব্যবহারে এখনও কোনো পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া দেখা যায়নি।

এই টিকা ব্যবহারের পর শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা ইবোলা ভাইরাসকে সনাক্ত করে তার মোকাবেলা করতে পারবে বলে মনে করছেন তারা।

ঔষধ কোম্পানি গ্লাক্সো স্মিথ অ্যান্ড ক্লাইনের প্রধান নির্বাহী স্যার অ্যান্ড্রু উইটির মতে, এটি খুবই উৎসাহব্যঞ্জক একটি প্রাথমিক ইংগিত। এটিকে অবশ্যই আশার আলো।

গবেষকরা বলছেন, যদি পরবর্তী পরীক্ষায় সফলতা পাওয়া যায়, তাহলে আগামী জানুয়ারির মধ্যে এই টিকা পশ্চিম আফ্রিকায় ইবোলা রোগীদের সেবা দানকারী কয়েক হাজার স্বাস্থ্য কর্মীদের দেওয়া হবে।

তবে দ্রুত কাজ করলেও এর পার্শ্ব প্রতিক্রিয়ার বিষয়ে নজর রাখার কথাও জানালেন গবেষকরা।

স্যার উইটি জানান, এই টিকার পরবর্তী পরীক্ষায় সফলতা পাওয়া গেলে এর লাইসেন্স নেওয়া হবে। বাণিজ্যিকভাবে উৎপাদনের ক্ষমতার বিষয়েও চিন্তা করতে হবে।

তিনি আরও বলেন, ২০১৫ সালের মাঝামাঝি সময়ে এই টিকা বাণিজ্যিকভাবে বাজারে নিয়ে আসার চেষ্টা করা হবে।

প্রসঙ্গত, পশ্চিম আফ্রিকায় ইবোলার ভয়াবহ মহামারি দেখা দেওয়ার পর এর প্রতিষেধক তৈরিতে ব্যাপক উদ্যোগ নেওয়া হয়।

সর্বশেষ পশ্চিম আফ্রিকার দেশ মালিতে ইবোলা ভাইরাসের প্রবেশ হলেও ইতোমধ্যে দেশটিতে এই রোগে মারা গেছে ৬ জন। আরও ৫০০ জনকে পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে।

সবচেয়ে বেশি মহামারী দেখা গেছে গিনি, সিয়েরালিওন এবং লাইবেরিয়ায়। এছাড়া নাইজেরিয়া, স্পেন ও যুক্তরাষ্ট্রেও ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়েছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সর্বশেষ পরিসংখ্যান মতে, ইবোলায় এ পর্যন্ত অন্তত ৫ হাজার ৪০০ জন মারা গেছেন।

সূত্র: বিবিসি।

এমই/