মেসি-সুয়ারেসে বার্সার জয়

0
91
মেসি-সুয়ারেস

লিওনেল মেসির জাদুকরী ছোঁয়ায় একই সপ্তাহে লা লিগা এবং চ্যাম্পিয়ন্স লিগে সঠিক ছন্দে ফিরেছে বার্সালোনা। আর বার্সার জার্সি গায়ে প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচে প্রথম গোলের স্বাদ পেয়েছেন লুইস সুয়ারেস। ২ লাতিনের নৈপুণ্যে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে আপোয়েলকে ৪-০ ব্যবধানে উড়িয়ে দিয়েছে কাতালানরা।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ৭৩তম গোলের পর মেসির উদযাপন
চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ৭৩তম গোলের পর মেসির উদযাপন

মঙ্গলবার রাতে আপোয়েলের মাঠে পাওয়া এই জয়েও ‘এফ’ গ্রপের শীর্ষে উঠতে পারেনি বার্সা। ৫ ম্যাচে ১২ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানেই রয়েছে তারা। ফরাসি ক্লাব পিএসজি ১৩ পয়েন্ট নিয়ে রয়েছে শীর্ষে। মঙ্গলবার আয়াক্স আমস্টারডামকে ৩-১ গোলে হারিয়েছে পিএসজি।

বার্সার পক্ষে গোলের সূচনাটা করেছিলেন অবশ্য উরুগুইয়ান স্ট্রাইকার লুইস সুয়ারেজ। ২৭ মিনিটে জর্দি আলবার কাছ থেকে বল পেয়ে বাম পাশ থেকে ডান পায়ের কোনাকুনি শটে অ্যাপয়েলের জাল ভেদ করেন সুয়ারেজ। বার্সেলোনার হয়ে প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচে এটাই সুয়ারেসের প্রথম গোল।

নেইমারহীন ম্যাচের বাকিটা সময় মেসিময়। ৩৮ মিনিটে রাফিনহার পাস থেকে বল পেয়ে বক্সের একেবারে মাঝ বরাবর থেকে শট নেন মেসি। গড়েন নতুন ইতিহাস। ছাড়িয়ে যান চ্যাম্পিয়ন্স লিগে রাউলের করা সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ডকে।

৫৮ মিনিটে দ্বিতীয় গোল করেন মেসি। দানি আলভেজের থ্রো থেকে বল পেয়ে অ্যাপয়েলের আগুয়ান গোলরক্ষক উরকো পাদরোর মাথার ওপর দিয়ে দারুন এক চিপে বল জড়ান প্রতিপক্ষের জালে।

৭০ মিনিটে দ্বিতীয় হলুদ কার্ডের পর লালকার্ড দেখে মাঠ ছাড়তে হয় বার্সালোনার রাফিনাকে। একটু পরে তাই সুয়ারেসকে উঠিয়ে রক্ষণাত্মক মিডফিল্ডার বুসকেতসকে নামান কোচ লুইস এনরিকে।

৮৭ মিনিটে পেদ্রোর সহায়তা পূরণ করেন হ্যাটট্রিক।

এফ গ্রুপের অন্য ম্যাচে এদিনসন কাভানি ও ইব্রাহিমোভিচের নৈপুণ্যে নিজেদের মাঠে আয়াক্স আমস্টারডামকে ৩-১ গোলে হারিয়েছে পিএসজি।

ইউএম/