‘পুরুষের কারণেই পিছিয়ে নারী’

0
82
Women
মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে সাংবাদিকদের সঙ্গে নির্বাচিত নারী জনপ্রতিনিধিদের মতবিনিময় সভা।

পারিবারিক ও সামাজিক বাধা এবং পুরুষ সহকর্মীদের নেতিবাচক মনোভাববের কারণেই গ্রাম আদালত বা সালিশে নিয়মিত যেতে পারেন না বলে অভিযোগ করেছেন নারী প্রতিনিধিরা।

মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে সাংবাদিকদের সঙ্গে নির্বাচিত নারী জনপ্রতিনিধিদের মতবিনিময় সভায় তারা এ অভিযোগ করেন।

Women
মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে সাংবাদিকদের সঙ্গে নির্বাচিত নারী জনপ্রতিনিধিদের মতবিনিময় সভা।

শেরপুর জেলা সদরের নির্বাচিত নারী প্রতিনিধি হাসনা হেনা বলেন, টিএনও এবং ডিসিরা আমাদের কথা শোনেন না। তারা শোনেন পুরুষদের কথা। তবে যখন পুরুষ প্রতিনিধিরা ঢাকায় থাকেন তখন তারা আমাদের দারস্থ হন।

কাবিখা ও টিআর প্রকল্পে বরাদ্দকৃত কার্ড মহিলাদের চেয়ে পুরুষদের জন্য বেশি রাখা হয় বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

নারী প্রতিনিধিরা কাজ করতে বিভিন্ন বাধার সম্মুখিন হতে হয় উল্লেখ করে

নড়াইল জেলা প্রতিনিধি বিথিকা পারভীন বলেন, ইউপির সভায় বিভিন্ন সময় নারীদের নাম থাকে না। কাজ করতে অনেক বাধার সম্মুখিন হতে হয়। কমিউনিটি ক্লিনিক ও প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কমিটিতে থাকার জন্য অনেক বাঁধাও এসেছে। তবু আমরা কাজ করছি।

বক্তারা আরও বলেন, স্থানীয় বিরোধ মিমাংসায় গ্রাম আদালত বা সালিশে নির্বাচিত নারী প্রতিনিধির অংশগ্রহণকে নিরুৎসাহিত করেন পুরুষ জনপ্রতিনিধিরা। পাশাপাশি তারা অনেক সময় ব্যক্তিগত স্বার্থের কারণে বিচার প্রক্রিয়াকে প্রভাবিত করেন।

তারা অভিযোগ করেন, ইউনিয়ন এবং ওয়ার্ড সভা বা মাসিক সভায় চেয়ারম্যান ও পুরুষ সদস্যদের সুবিধামতো সিদ্ধান্ত লেখা হয়। নারী সদস্যদের পক্ষ থেকে উপস্থাপিত সিদ্ধান্তগুলোকে বেশিরভাগ সময়ে গুরুত্ব দেওয়া হয় না।

সভায় নারী জনপ্রতিনিধিদের বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে সাংবাদিকদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখার পরামর্শ দেন বৈশাখী টিভির প্রধান নির্বাহী মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন প্রিপ ট্রাস্টের নির্বাহী পরিচালক এ্যারোমা দত্ত, খান ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক্ অ্যাডভোকেট রোখসানা খন্দকার, স্টেপস টুয়ার্ডস ডেভেলপমেন্টের নির্বাহী পরিচালক রঞ্জন কর্মকার, টাঙ্গাইল সদর থানার নারী জনপ্রতিনিধি রোকেয়া বেগম, মাজেদা বেগম, মাগুরার সাথী বেগম প্রমুখ।

এমআই/