‘পোশাক কারখানায় কেচি গেইট লাগানো যাবে না’

0
257
পোশাক কারখানা
ছবি: ফাইল ছবি
garments-worker
পোশাক কারখানায় কাজ করছেন শ্রমিকরা

পোশাক শ্রমিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে ভবিষ্যতে কোনো কারখানায় কেচি গেইট লাগানো যাবে না বলে জানিয়েছে পশ্চিমা পোশাক ক্রেতা জোট অ্যালায়েন্স।

সোমবার বিকেলে রাজধানীর গুলশানে অ্যালায়েন্স (বাংলাদেশ) কার্যালয়ে ‘অ্যালায়েন্স ফর বাংলাদেশ ওয়ার্কার সেফটি অগ্রগতি সম্পর্কে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এই কথা জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনের বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মেজবাহ রবিন বলেন, পোশাক কারখানায় শ্রমিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে কারখানায় কোনো ধরনের কেচি গেইট কিংবা শাটার লাগানো যাবে না।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ ন্যাশনাল বিল্ডিং কোড-২০০৬ সালের নীতিমালায় উল্লেখ আছে কারখানায় কোনো কেচি গেইট থাকবে না। সব মালিকদের এই নীতিমালা বাস্তবায়ন করতে হবে। এবং তা ২০১৫ সালের মধ্যেই এই কার্যকর করতে হবে।

প্রত্যেক পোশাক কারখানায় লোহার কেচি গেইটের পরিবর্তে ফায়ারবোর্ড দিয়ে দরজা তৈরি করার দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, দুর্ঘটনা ঘটলে শ্রমিকরা সহজেই দরজা দিয়ে বের হতে পারে সে ব্যবস্থাই করতে হবে।

চার্টাড সেফটি এন্ড হেলথ প্র্যাকটিশনার এক্সপার্ট ইন ওয়ার্কপ্লেস ফায়ার সেফটি’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. ডেভিড গোল্ড বলেন, কারখানায় দূর্ঘটনার সময় শ্রমিকরা বের হতে চাইলে সিকিউরিটি গার্ডরা তাদের বাধা দেয়। এটা অত্যন্ত অমানবিক।

সিকিউরিটি গার্ড কোম্পানিগুলোরে উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, শ্রমিকদের বাধা না দিয়ে বরং দ্রুত বের হওয়ার জন্য তাদের সহাতায় করতে সিকিউরিটি গার্ডদের উপযুক্ত প্রশিক্ষণ দিন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে অ্যালায়েন্স বাংলাদেশের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ইয়ান স্পাউল্ডিং বলেন, পোশাক শিল্প শ্রমিকদের জীবন রক্ষার্থে কারখানার নিরাপত্তা প্রহরীদের প্রশিক্ষণ প্রদানের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ন্যাশনাল ফায়ার প্রটেকশন অ্যাসোসিয়েশন (এনএফপিএ)-এর দিক নির্দেশনা অনুসারেই তাদেরকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে।

তিনি বলেন, এই প্রশিক্ষণের ফলে কারখানার প্রহরীরা জ্ঞান ও দক্ষতা অর্জনের মধ্যে দিয়ে যে ক্ষমতা অর্জন করবেন তা মানুষের জীবন রক্ষার্থে কাজে আসবে।

ইয়ান স্পাউল্ডিং আরও বলেন, কারখানার নিরাপত্তা এবং শ্রমিক ক্ষমতায়নের জন্য অ্যালায়েন্স “আমাদের কথা” নামক একটি হেল্প লাইন চালু করেছে; যেখানে শ্রমিকরা তাদের নাম পরিচয় গোপন রেখে নিরাপত্তা এবং অন্যান্য সমস্যার কথা জানাতে পারবেন।

জেইউ/