পরকীয়ার জন্য দায়ী জিন!

0
128
philander
philander
প্রতীকি ছবি

সঙ্গীর বিশ্বাস ভঙ্গ করে পরকীয়ার মতো ‘দুষ্কর্ম’ এর জন্য নাকি জিন তথা বংশগতি দায়ী।

এক খবরে এই সময় জানিয়েছে, সম্প্রতি গবেষণায় এমন প্রমাণ পাওয়ার গেছে বলে দাবি করেছেন অস্ট্রেলিয়ার কুইন্সল্যান্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক।

তারা জানিয়েছেন, পুরুষদের মধ্যে ৬৩ শতাংশ আর মহিলাদের মধ্যে ৪০ শতাংশ পরকীয়া সম্পর্কের ক্ষেত্রে কাজ করে জিনগত উপাদান।

শুধু তাই নয়, নারীর ক্ষেত্রে বিশেষ একটি জিনকে এই ব্যাপারে চিহ্নিত করেছেন তারা।

মোট ৭ হাজার ৩০০ জন যমজের উপর পরীক্ষা চালিয়ে তারা এ তথ্য জানতে পেরেছেন। এদের বয়স ১৮ থেকে ৪৯ বছর। এরা প্রত্যেকেই দীর্ঘমেয়াদি সম্পর্কে আবদ্ধ ছিলেন।

গবেষকরা অংশগ্রহণকারীদের জিনগত ইতিহাস ও পারিবারিক নথিও সংগ্রহ করেন। এরপর সংগৃহীত সমস্ত তথ্য জেনেটিক মডেলিং প্রক্রিয়ায় ফেলে জিনগত পার্থক্য পরিমাপ করেন তারা।

পরে গবেষকরা দুই যমজের ক্ষেত্রে তথ্য মিলিয়ে দেখতে পান যে, পরকীয়ার জন্য জিনই দায়ী।

এমনকি সমীক্ষার আগের ১২ মাসে এই দলের ৯.৮ শতাংশ পুরুষ এবং ৬.৪ শতাংশ মহিলা দুই বা তার চেয়ে বেশি যৌনসঙ্গীর সঙ্গে সঙ্গম করেছেন।

গবেষক দলের প্রধান এবং কুইন্সল্যান্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ব্রেন্ড্যান জিয়েচ বলেন, আমাদের পরীক্ষায় প্রমাণিত হয়েছে, বৈধ সম্পর্কের বাইরে যৌন মিলন ঘটানোর প্রবণতার পিছনে জিনের গঠন বৈচিত্রের সক্রিয় ভূমিকা রয়েছে।