খালেদার দুই আবেদনের আদেশ সোমবার

0
104
Khaleda Zia
বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। ছবি: খালেদুল কবির নয়ন
Khaleda Zia 1
কশীবাজার এলাকার সরকারি আলিয়া মাদ্রাসা ও ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার সংলগ্ন মাঠে নির্মিত অস্থায়ী আদালত ভবনে খালেদা জিয়া। ফাইল ছবি

জিয়া অারফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলা নিয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার দুটি আপিলের আবেদনে সোমবার আদেশ দেবে আপিল বিভাগ।

রোববার প্রধান বিচারপতি মো. মোজাম্মেল হোসেনের নেতৃত্বে আপিল বিভাগের ৫ সদস্যের বেঞ্চ আদেশের এই দিন ধার্য করেন।

এছাড়া খালেদার জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় শুনানি সোমবার পর্যন্ত মুলতবি করেছে আদালত।

আদালতে খালেদা জিয়ার পক্ষে ছিলেন আইনজীবী জয়নুল আবেদীন ও দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পক্ষে ছিলেন মোহাম্মদ খুরশীদ আলম খান। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।

প্রসঙ্গত, জিয়া আরফানেজ ট্রাস্টে অনিয়মের অভিযোগে দুদক ২০০৮ সালের ৩ জুলাই রমনা থানায় মামলা করে।

২০১০ সালের ৫ অগাস্ট বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া, ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে এ মামলায় অভিযোগপত্র দেন। তাদের বিরুদ্ধে  ২ কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার ৬৭১ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ আনা হয়।

এ মামলার অপর আসামিরা হলেন- মাগুরার সাবেক সাংসদ কাজী সালিমুল হক কামাল, ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমেদ, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সাবেক সচিব কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী এবং প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ভাগ্নে মমিনুর রহমান।

এছাড়া ২০১১ সালের ৮ আগস্ট তেজগাঁও থানায় জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলাটি দায়ের করা হয়।

এ মামলায় গত বছরের ১৬ জানুয়ারি খালেদা জিয়াসহ চারজনকে আসামি করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে দুদক। মামলাটিতে তিন কোটি ১৫ লাখ ৪৩ হাজার টাকা আত্মসাতের অভিযোগ আনা হয়।

এ মামলার অপর আসামিরা হলেন- খালেদার সাবেক রাজনৈতিক সচিব হারিছ চৌধুরী, হারিছের তখনকার সহকারী একান্ত সচিব ও বিআইডব্লিউটিএর নৌ নিরাপত্তা ও ট্রাফিক বিভাগের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক জিয়াউল ইসলাম মুন্না এবং ঢাকার সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার একান্ত সচিব মনিরুল ইসলাম খান।

পুরান ঢাকার বকশীবাজারের আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে স্থাপিত বিশেষ জজ আদালত-৩ (নিম্ন আদালত)-এ খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দুর্নীতির এই দুই মামলার বিচারকাজ চলছে।

এর মধ্যে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্টে দুর্নীতির অভিযোগে দুদকের করা মামলায় বিচারক নিয়োগ চ্যালেঞ্জ করে গত ১২ মে হাইকোর্টে একটি রিট করেন খালেদা জিয়া। গত ১৯ জুন তা রিট খারিজ করে চূড়ান্ত রায় দেন হাইকোর্ট। এরপর ৭ জুলাই ওই রায়ের বিরুদ্ধে পৃথক লিভ টু আপিল দায়ের করেন খালেদা জিয়া।

এসএম