মনই নারীর যৌনাকাঙ্ক্ষার নিয়ন্ত্রক

0
105
holding-hands-story-top
প্রতীকী ছবি

যৌনতার প্রতি নারীর আকাঙ্ক্ষা নির্ধারণে হরমোনের ভূমিকা প্রচলিত ধারণার চেয়ে অনেক বেশি জটিল বলে দাবি করেছেন একদল মার্কিন গবেষক। নতুন এক গবেষণায় তারা বলছেন, হরমোন যৌন আকাঙ্ক্ষাকে চালিত করে না। সম্পর্ক নিয়ে নারীর সন্তুষ্টি এবং অন্যান্য মনস্তাত্ত্বিক কারণ যেকোনো হরমোনের প্রভাবকে অতিক্রম করতে পারে।

রজঃনিবৃত্তিকালে (মেনোপজ) প্রজনন হরমোন এবং যৌন ক্রিয়ার মধ্যে সম্পর্ক বিশ্লেষণ করতে ৩ হাজার ৩০২ জন নারীর ওপর এ গবেষণা করা হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের ইউনিভার্সিটি অব মিশিগান মেডিকেল স্কুলের জন রেনডল্ফের নেতৃত্বে পরিচালিত এ গবেষণার ফল জার্নাল অব ক্লিনিক্যাল এন্ডোক্রিনোলজি অ্যান্ড মেটাবলিজমে প্রকাশিত হয়েছে।

গবেষণায় উঠে এসেছে, রজঃনিবৃত্তিকাল পার করছেন এমন মহিলাদের যৌনতায় প্রলুব্ধ করার ক্ষেত্রে টেস্টোস্টেরন এবং অন্যান্য স্বাভাবিক প্রজনন হরমোনের মাত্রা সীমিত ভূমিকা পালন করে।

টেস্টোস্টেরন হল পুরুষের প্রধান সেক্স হরমোন, যা অল্প পরিমাণে প্রাকৃতিকভাবে নারীর জরায়ুতেও থাকে।

রজঃনিবৃত্তিকালের মধ্য দিয়ে যাওয়া নারীদের যৌনতার ক্ষেত্রে কোন বিষয়টি মুখ্য ভূমিকা রাখে- মূলত এই প্রশ্নের উত্তর খুজেঁছেন গবেষকরা। গবেষণায় অংশ নেওয়া নারীদের যৌনতার প্রতি আকাঙ্ক্ষা বিষয়ে প্রশ্ন করা হয়।

এ প্রসঙ্গে গবেষক দলের প্রধান জন রেনডল্ফ বলেন, টেস্টোস্টেরন ও অন্যান্য স্বাভাবিক প্রজনন হরমোনের মাত্রা নারীর যৌন আকাঙ্ক্ষার অনুভূতির সাথে সম্পৃক্ত। তবে আমাদের গবেষণার ফল বলছে, যৌনতার বিভিন্ন দিকের ওপর নারীর মনস্তাত্ত্বিক বিষয় প্রভাব ফেলে।

তিনি বলেন, মানসিক স্থিতি ও সম্পর্কের গভীরতা একজন নারীর যৌন স্বাস্থ্যের জন্য ভীষণভাবে গুরত্বপূর্ণ। সূত্র: ডেইলি মেইল

এআর/