নতুন ৮ শেয়ারের আয় বেড়েছে

0
157
rsrm-steels-shajibazar-hotel-Fariest
নতুন চার কোম্পানির লোগো

চলতি বছরে পুঁজিবাজারে লেনদেন শুরু করা বেশিরভাগ নতুন শেয়ারের প্রথম প্রান্তিকে শেয়ার প্রতি আয় বা ইপিএস বেড়েছে। কোম্পানিগুলোর প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই, ১৪-সেপ্টেম্বর, ১৪) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে এ তথ্য জানা গেছে।

ডিএসই সূত্রে জানা গেছে, চলতি বছরের নভেম্বর মাস পর্যন্ত পুঁজিবাজারে নতুন ১৬টি কোম্পানি লেনদেন শুরু করে। এর মধ্যে নভেম্বরে ২টি কোম্পানি লেনদেন করে। আর এখন পর্যন্ত ১৩টি কোম্পানি প্রথম প্রান্তিকের তথ্য প্রকাশ করেছে।এতে দেখা গেছে, নতুন ৮টি কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় বেড়েছে।

কোম্পানিগুলো হচ্ছে- সাইফ পাওয়ারটেক লিমিটেড, রতনপুর স্টীল রি-রোলিং মিলস, ফারইস্ট নিটিং অ্যান্ড ডাইং ইন্ডাস্ট্রিজ, শাহজিবাজার পাওয়ার কোম্পানি লিমিটেড, দ্য পেনিনসুলা চিটাগং, মতিন স্পিনিং মিলস, এমারেল্ড অয়েল এবং মোজাফফর হোসেন স্পিনিং মিলস লিমিটেড।

সাইফ পাওয়ারটেক

আলোচিত প্রান্তিকে সাইফ পাওয়ারটেক শেয়ার প্রতি আয় করেছে ৭৭ পয়সা। যা আগের বছরের তুলনায় ৭১ শতাংশ বেশি। আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটি আয় করেছিল ৪৫ পয়সা।

রতনপুর স্টীল

প্রকৌশল খাতের রতনপুর স্টীল প্রথম প্রান্তিকে শেয়ার প্রতি আয় করেছে ১ টাকা ৭০ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটি শেয়ার প্রতি আয় করেছিল ১ টাকা ২১ পয়সা। অর্থ্যাৎ আগের বছরের তুলনায় কোম্পানির আয় বেড়েছে ৪০ শতাংশ।

ফারইস্ট নিটিং

বস্ত্র খাতের ফারইস্ট নিটিং প্রথম প্রান্তিকে শেয়ার প্রতি আয় করেছে  ৫৭ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটি শেয়ার প্রতি আয় করেছিল ২৬ পয়সা। অর্থ্যাৎ আগের বছরের তুলনায় কোম্পানির আয় বেড়েছে ১১৯ শতাংশ।

শাহজিবাজার পাওয়ার

পুঁজিবাজারে বহুল আলোচিত শাহজিবাজার পাওয়ার কোম্পানি প্রথম প্রান্তিকে শেয়ার প্রতি আয় বা ইপিএস করেছে ২ টাকা ৩৬ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটি শেয়ার প্রতি আয় করেছিল ৫১ পয়সা। অর্থ্যাৎ আগের বছরের তুলনায় কোম্পানির আয় বেড়েছে ৩৬৩ শতাংশ।

হোটেল পেনিনসুলা

ভ্রমণ ও অবকাশ খাতের কোম্পানিটির প্রথম প্রান্তিকে শেয়ার প্রতি আয় বা ইপিএস বেড়েছে ২৭ শতাংশ। আলোচিত প্রান্তিকে কোম্পানিটি শেয়ার প্রতি আয় করেছে ৩৮ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটি শেয়ার প্রতি আয় করেছিল ৩০ পয়সা।

মতিন স্পিনিং

আলোচিত বছরে মতিন স্পিনিং শেয়ার প্রতি আয় বা ইপিএস করেছে ১ টাকা ১০ পয়সা। আগের বছর একই সময় কোম্পানিটি শেয়ার প্রতি আয় করেছিল ১ টাকা ৫ পয়সা। অর্থাৎ আগের বছরের তুলনায় কোম্পানিটির আয় বেড়েছে ৫ শতাংশ।

এছাড়া এমারেল্ড অয়েলের আয় বেড়েছে ৩৯% ও মোজাফফর হোসেন স্পিনিং মিলসের ২৮%।

অপরিদেকে ইপিএস কমেছে সুহৃদ ইন্ডাস্ট্রিজ, কেপিপিএল, ফার কেমিক্যাল ও হা-ওয়েল টেক্সটাইলের।

অর্থসূচক/এসএ/