‘১০ বছরে বিদেশে কাজ পেয়েছে ৫১,৭১,৪৫৩ জন’

0
101
workers
বিদেশি শ্রমিক-ফাইল ছবি
বিদেশ বাংলাদেশি শ্রমিক (ফাইল ছবি)
বিদেশ বাংলাদেশি শ্রমিক (ফাইল ছবি)

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, বিগত ১০ বছরে ৫১ লাখ ৭১ হাজার ৪৫৩ জন কর্মী বিদেশে কর্মসংস্থান লাভ করেছে।

আজ বৃহস্পতিবার সংসদে জাতীয় পার্টির এ কে এম মাইদুল ইসলামের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

সরকারি দলের আনোয়ারুল আজীম (আনার)-এর অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সারা বিশ্বে কর্মী গ্রহণকারী দেশসমূহের কাছে দক্ষ কর্মীর চাহিদা অনেক বেশী। দক্ষ কর্মীদের অভিবাসন ব্যয়ও অনেক কম। তারা সহজে বিদেশে সম্মানজনক চাকরি পেয়ে থাকেন, বেতনও অনেক বেশী।

মন্ত্রী বলেন, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের অধীনস্থ জনশক্তি, কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো (বিএমইটি) দেশের বেকার যুবক ও যুব মহিলাদের দেশে-বিদেশে কর্মসংস্থানের লক্ষ্যে দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ কার্যক্রম পরিচালনা করছে। বিএমইটির অধীনস্থ ৪৭টি প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে ৪৮টি কর্মসংস্থান উপযোগী ট্রেডে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হচ্ছে। বর্তমানে প্রশিক্ষণ প্রদানের সক্ষমতা বছরে প্রায় ৯০ হাজার। প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত যুবক ও যুব মহিলাগণ দেশে-বিদেশে কর্মসংস্থানের সুযোগ পাচ্ছেন।

তিনি বলেন, ২১টি নতুন কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র এবং ২টি নতুন ইনস্টিটিউট অব মেরিন টেকনোলজি (আইএমটি) স্থাপনের নির্মাণ কাজ চলমান রয়েছে, যা ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসের মধ্যে সমাপ্ত হবে। নতুন নির্মাণাধীন সকল প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের নির্মাণ কাজ শেষে প্রশিক্ষণ কার্যক্রম শুরু হলে প্রশিক্ষণ সক্ষমতা বছরে প্রায় ১ লাখ ৫০ হাজারে দাঁড়াবে।

প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী বলেন, আগামী বছরে প্রায় ৬ থেকে ৭ লাখ কর্মীর বিদেশে কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। ফলে প্রতিবছর গড়ে আরও প্রায় সাড়ে ৪ লাখ থেকে সাড়ে ৫ লাখ কর্মীর প্রশিক্ষণ প্রদানের প্রয়োজন হবে। এ বিষয়টির গুরুত্ব বিবেচনা করে প্রধানমন্ত্রীর দিক-নির্দেশনায় উপজেলা পর্যায়ে চার শতাধিক কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র স্থাপন সম্পর্কিত প্রকল্প প্রণয়নের কাজ শেষ পর্যায়ে রয়েছে।

মন্ত্রী বলেন, প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে বছরে আরো সাড়ে ৪ লাখ থেকে সাড়ে ৫ লাখ কর্মীর প্রশিক্ষণ দেয়া যাবে এবং প্রতিটি উপজেলায় ১টি করে কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র স্থাপন করা সম্ভব হবে।

সূত্র: বাসস