দিনাজপুরে পাঁচটি ভোট কেন্দ্রে আগুন, হরতালে শহর জুড়ে ভাংচুর

0
76

Dinajpur Vote Fire Photo-01দিনাজপুরে পাঁচটি ভোট কেন্দ্রে ও  একটি ধান বোঝাই ট্রাকে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। অপরদিকে হরতাল চলাকালে মিছিল থেকে দিনাজপুর ষ্টেশনের টিকেট কাউন্টার, এটিএম বুথ, চাইনিজ রেস্তোরা ও ১০ টি অটো রিক্সা ভাংচুর  করেছে হরতালকারীরা।

শুক্রবার গভীর রাত  থেকে শনিবার বিকাল পর্যন্ত এই ঘটনা ঘটায় দূর্বৃত্ত ও হরতাল কারীরা।

কেন্দ্র গুলো হলো সদর উপজেলার বড়ইল সরকারী প্রাথমীক বিদ্যালয়, চাঁদগঞ্জ স্কুল এন্ড কলেজ, তফির উদ্দীন মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয়, স্বাদেশ্বরী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও পার্বতীপু হয়রতপুর সরকারী প্রাথমীক বিদ্যালয় কেন্দ্র।

জানা যায়, রাতে সদর উপজেলার বড়ইল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষের জানালা দিয়ে আগুন দেয় কে বা কারা। এতে ঐ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের কক্ষ ও অফিসের চেয়ার টেবিল, জাতীয় পতাকা, রেজাল্ট শিট, বই ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র পুড়ে যায়।

এদিকে রাতে চাঁদগঞ্জ স্কুল এন্ড কলেজ কেন্দ্রে দূর্বৃত্তরা আগুন দিয়ে পালিয়ে যায়। এসময় স্থানীয় লোকজন এসে আগুন নিভিয়ে ফেলে। এতে ওই ভোট কেন্দ্রের দরজা-জানালা পুড়ে যায়।

একই রাতে আগুন দেয় উপশহর তছির উদ্দিন মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে। সেখানে নিরাপত্তায় নিয়োজিত আনসার ভিডিপির সদস্যরা আগুন নিভিয়ে ফেলে। অপরদিকে রাতেই দিনাজপুর বিরল সড়কের কাঞ্চন ব্রীজের উপরে একটি ধান বোঝাই ট্রাকে আগুন ধরিয়ে দেয়। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে।

শনিবার বিকাল সাড়ে তিনটার দিকে স্বাদেশ্বরী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও পার্বতীপুর হযরতপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রে আগুন দেয় দূর্বৃত্তরা। এতে দুটি কেন্দ্রের দরজা-জানালা পুড়ে যায়। অন্য কোন ক্ষয়-ক্ষতি হয়নি। এছাড়াও পার্বতীপুর জ্ঞানেংকুর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে রশিতে ঝুলানো প্রার্থীর পোষ্টর ছিড়ে আগুন লাগিয়ে দিলে সেখানে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। পরে সেনা বাহিনী এসে পরিস্থতি নিয়ন্ত্রনে আনে।

এদিকে গতকাল দুপুরে বিএনপি কার্যালয় থেকে ১৮ দলের একটি মিছিল বের হয়। মিছিলটি শহরের প্রধান সড়ক গুলো পদক্ষিণ করার সময় দিনাজপুর রেলওয়ে ষ্টেশনে হামলা চালায়। তারা টিকেট কাউন্টারের কম্পিউটার ও ষ্টেশনের বিভিন্ন কক্ষের থাই গ্লাস ভাংচুর করে। মিছিলটি বাণিজ্যিক এলাকা মুন্সিপাড়া  অতিক্রম করার সময় সোনালী, সিটি , শাহাজালাল ও ব্রাক ব্যাংকের এটিএম বুথ, আমেরিকান লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানীর অফিস ও গণেশতলায় চাইনিজ রেস্তোরা মার্টিন চাইনিজ রেষ্টুরেন্ট ও কনকর্ড আবাসিক এন্ড চাইনিজ রেষ্টুরেন্ট ভাংচুর করে। এছাড়াও হরতালকারীরা শহরের নিমনগর ফুলবাড়ী বাস ষ্ট্যান্ড, পুলহাট, বালুয়াডাঙ্গা মোড়, সুইহারী মোড়ে কমপক্ষে ১০ টি অটোরিক্সা  ভাংচুর করে।

দিনাজপুর কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আলতাফ হোসেন ঘটনা গুলোর সত্যতা স্বীকার করে জানান, এখন পর্যন্ত কোন অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তবে বিএনপি-জামায়াতের ৩ জনকে আটক করা হয়েছে।

সাকি/