নির্বাচনে পার্বত্য জেলায় সহায়তা দিবে হেলিকপ্টার

0
35
হেলিকপ্টার

হেলিকপ্টারএবার দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জন্য পার্বত্য অঞ্চলের ৩টি জেলার ৩৩টি ভোটকেন্দ্রে হেলিকপ্টার সহায়তা প্রদান করবে। দূর্গম ও প্রত্যন্ত অঞ্চলের ভোটকেন্দ্রে ভোটগ্রহণ, কর্মকর্তাদের গমন ও প্রত্যাবর্তন, নির্বাচনী কাজে মালামাল পরিবহন এবং আইন-শৃঙ্খলা রক্ষার জন্য হেলিকপ্টারের সহায়তা নেয়া হবে।

বৃহস্পতিবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব মো. কামরুল হাসান খানের স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিবকে জানানো হয়েছে।

সূত্র জানায়, খাগড়াছড়ি জেলায় ৪টি, বান্দরবন পার্বত্য জেলায় ১৩টি এবং রাঙামাটি জেলায় মোট ১৬টি ভোট কেন্দ্রের জন্য হেলিকপ্টার সহায়তা প্রদান করবে।

ইসি কর্মকর্তা জানান, এবার বিমানের সহায়তা থাকছে না। তবে পার্বত্য জেলা ও দূর্গম এলাকায় হেলিকপ্টারের সহায়তা থাকছে। কিন্তু কয়টি হেলিকপ্টার সহায়তা প্রদান করবে এর কোনো সুনির্দিষ্ট সংখ্যা উল্লেখ করেননি তিনি। সংখ্যা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, নির্বাচনী কাজে সহায়তার জন্য ৩৩টি ভোটকেন্দ্রে প্রয়োজন অনুযায়ী হেলিকপ্টার সহায়তা দেবে।

এছাড়া নির্বাচর উপলক্ষে নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের জারিকৃত নির্দেশনাসমূহ বাংলাদেশ ডাক বিভাগ কর্তৃক পরিপালনের কাজটি মনিটরিং এর জন্য নিয়ন্ত্রণকক্ষ স্থাপনের জন্য একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। এটি গঠন করেছে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনাক্রমে কর্মকর্তাদের সমন্বয়ে ডাক বিভাগ অধিদপ্তর। এতে প্রধান করা হয়েছে প্রধান ডাক অধিদফতরের পরিচালক আব্দুল্লাহ আল মাহবুব রশীদ। এছাড়া অপর দুই সদস্য করা হয়েছে ডাক অধিদপ্তরের শাখা কর্মকর্তা(জনসংযোগ ও কল্যাণ) আবদুল মালেক এবং ডাক অধিদপ্তরের প্রশাসনিক কর্মকর্তা মাহফুজুর রহমানকে।

এই কমিটির প্রধান কাজ হবে, নির্বাচনী কাজে সংশ্লিষ্ট পোষ্ট অফিস ভালমতো দায়িত্ব পালন করছে কিনা তা মনিটরিং করা।

কেন্দ্রীয় নিয়ন্ত্রণ কক্ষ ০৫ জানুয়ারি সকা ৯টা থেকে চালু থাকবে এবং ডাকযোগে সরাসরি নির্বাচন কমিশনে ভোট গণনার বিবরণী পোষ্ট হওয়া পযর্ন্ত এর কার্যক্রম চলবে।

উল্লেখ্য, দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ১৫৩ আসনে কোন প্রতিদ্বন্দ্বী প্রাথী না থাকায় ভোট হচ্ছে না। ফলে ইসিকে নির্বাচন করতে হচ্ছে ১৪৭ আসনে। প্রতিদ্বন্দ্বীতা করবেন  ৩৯০ জন প্রার্থী।ভোট দেবে ৪ কোটি ৩৯ লাখ ৩৮ হাজার ৯৩৮ জন। ভোটকেন্দ্র ১৮ হাজার ২০৯টি এবং ভোটকেন্দ্রে থাকছে ৯১ হাজার ২১৩টি ভোটকক্ষ।

দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ইসির দেওয়া তথ্য অনুযায়ী ১২টি দল অংশ নিচ্ছে। আওয়ামী লীগের ২৪৬ জন, জাতীয় পার্টির ৮৫, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল(জাসদ) ২৪, জাতীয় পার্টি (জেপি) ২৮, গণতন্ত্রী পার্টি ১, গণফ্রন্ট ১, বাংলাদেশ ইসলামীফ্রন্ট ১, বাংলাদেশ খেলাফত মজলিশ ২, বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশন ৩, বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি ৬, বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্ট (বিএনএফ) ২২, বাংলাদেশ ওয়ার্কাস পার্টি ১৮ ও স্বতন্ত্র প্রার্থী রয়েছেন ১০৩ জন।

কবির/কেএফ