সুষ্ঠু রাজনীতির জন্য নৈতিকতার বিকল্প নেই

0
32

IMG_1133রাজনীতির ক্ষেত্রে নৈতিকতা না থাকলে সুশাসন প্রতিষ্ঠা এবং দেশের পরিবর্তন সম্ভব নয়। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়ন করতে হলে সবার আগে মানুষের মৌলিক অধিকার প্রতিষ্ঠিত করতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের (টিআইবি) নির্বাহী পরিচালক ড.ইফতেখারুজ্জামান।

বুধবার রাজধানীর শিল্পকলা একাডেমিতে এথিকস ক্লাব আয়োজিত ‘নৈতিকতা দিবস’ উপলক্ষে আলোচনা সভায় এ মন্তব্য করেন তিনি।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তৃতা করেন সাবেক প্রধান বিচারপতি হাবিবুর রহমান, জাতিসংঘের স্থায়ী প্রতিনিধি আব্দুল মোমেন, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ড. আনিসুজ্জামান, সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব রণজিৎ কুমার বিশ্বাস, দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যান মো. বদিউজ্জামানসহ বিশিষ্ট নাগরিকরা।

ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, নৈতিকতার কথা আমরা সবাই বলি। কিন্তু ক্ষমতা পেলে তা ভুলে যাই। রাজনীতিবিদরা ক্ষমতা পেলেই সম্পদের পাহাড় গড়েন, আবার দেশের গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রী এটাকে স্বাভাবিক ঘটনা বলে আখ্যায়িত করেন। এ রকম হলে দেশে কখনো পরিবর্তন সম্ভব নয়। ক্ষমতাকে কেন্দ্র করে দেশের মানুষকে জিম্মি করা কোনো নৈতিকতার মানদণ্ডেই ব্যাখ্যা করা যায় না।

তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের মূল চেতনা হলো মানুষের মৌলিক অধিকার ও ভোটের অধিকার ও সুশাসন প্রতিষ্ঠা করা। কাউকে হেয় করার জন্য মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ব্যবহার করা যাবে না।

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় সাবেক প্রধান বিচারপতি হাবিবুর রহমান বলেন, সমাজে নৈতিকতা প্রতিষ্ঠার জন্য সবার আগে ব্যক্তিজীবনে নৈতিকতার প্রসার ঘটাতে হবে। বিচার ব্যবস্থায় নৈতিকতার মানদণ্ড ঠিক করতে না পারলে রাজনীতিসহ কোনো জায়গাতেই সুশাসন প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব নয়।

বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ড. আনিসুজ্জামান বলেন, সমাজ পরিবর্তনে নৈতিকতার কোনো বিকল্প নেই। নৈতিকতা সমাজে শিখা যায় না। এর মানদন্ডও সমাজে থেকে পাওয়া যায় না। পারিবারিক শিক্ষাই একজন মানুষকে নৈতিকতার বলে বলীয়ান করে।

 

জাতি সংঘের স্থায়ী প্রতিনিধি ড. আব্দুল মোমেন বলেন, জাতি হিসেবে আমরা মূল্যবোধহীন। কারো বিরুদ্ধে অপপ্রচার করতে কখনো দ্বিধা করি না, এটা নৈতিকতার চরম অবক্ষয়।

দুদক চেয়ারম্যান মো. বদিউজ্জামান বলেন, সকল পেশার জন্যই নৈতিকতার মানদণ্ড রয়েছে। পেশাগত দায়িত্ব পালনে নৈতিকতার প্রমাণ দিলে দেশে আর দুর্নীতি থাকবে না। রাষ্ট্রীয়, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক অঙ্গনে প্রাতিষ্ঠানিকভাবে নৈতিকতার আলোকে কাজ করলে দেশ থেকে দুর্নীতি রোধ হবে।

বর্তমানে গণতন্ত্রের বিরুদ্ধে দুর্নীতি হচ্ছে উল্লেখ করে দুদক চেয়ারম্যান বলেন, রাজনীতিবিদরা নৈতিকতা পরিহার করে ক্ষমতায় আসার জন্য জোরপূর্বক ভোটারদের ব্যবহার করেন।

সংস্কৃত বিষয়ক মন্ত্রণালয়নের সচিব রণজিৎ কুমার বিশ্বাস বলেন, যারা সংস্কৃতি চর্চা করেন তারা সবাই নতুন প্রজন্মের সৈনিক। তারা নৈতিকতার আলোকে জীবন গড়লে দেশে পরিবর্তন আসা সম্ভব।

এইউ নয়ন/এআর