খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে করা দ্বিতীয় অভিযোগও খারিজ

0
80
খালেদা জিয়া পতাকা

খালেদা জিয়া পতাকাগোপালগঞ্জ  নিয়ে কুটুক্তি ও জেলার নাম বদলে দেওয়ার ঘোষণা করায় বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে করা মানহানির অভিযোগ খারিজ করে দিয়েছে আদালত।

বুধবার দুপুর সোয়া দুইটায় ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট আসাদুজ্জামান নূর অভিযোগটি খারিজ করে দেয়।

বুধবার সকালে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গোপালগঞ্জকে কটাক্ষ করে বক্তব্য প্রদান করায় মানহানির অভিযোগ এনে মামলাটি করেছেন আওয়ামী মুক্তিযোদ্ধা লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মুজিবুর রহমান মোল্লা।

বুধবার সকালে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গোপালগঞ্জকে কটাক্ষ করে বক্তব্য প্রদান করায় মানহানির অভিযোগ এনে মামলাটি করেছেন আওয়ামী মুক্তিযোদ্ধা লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মুজিবুর রহমান মোল্লা।

মামলার আরজিতে বাদী উল্লেখ করেন, তিনি গোপালগঞ্জের অধিবাসী এবং খালেদা জিয়া গোপালগঞ্জকে কটাক্ষ করে যে বক্তব্য দিয়েছে তাতে গোপালগঞ্জবাসী হিসেবে তার মানহানী হয়েছে, যা এক কোটি টাকার সমমূল্যের। মামলায় তিনি খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারী পরোয়ানা জারিরও আবেদন জানান।

আগের দিন জননেত্রী পরিষদের সভাপতি এ বি সিদ্দিক বিরোধী দলীয় নেতার বিরুদ্ধে আদালতে একই অভিযোগ নিয়ে গেলে শুনানি শেষে বিচারক তা ফিরিয়ে দেন।

প্রসঙ্গত, গত রোববার পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচিতে যোগ দিতে নয়াপল্টন কার্যালয়ে যাওয়া চেষ্টা করে পুলিশের বাধায় ব্যর্থ হওয়ার পর ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন বিরোধী দলীয় নেতা খালেদা জিয়া। ওই সময় প্রধানমন্ত্রীর জেলা গোপালগঞ্জ নিয়েও তিনি মন্তব্য করেন।

ঐদিন বিকেল ৪টার দিকে বাসার প্রধান ফটকের সামনে জাতীয় পতাকা হাতে বের হন তিনি। এক নারী পুলিশ সদস্যকে উদ্দেশ্য করে খালেদা জিয়াকে বলতে শোনা যায়- “এই যে মহিলা, আপনার মুখটা এখন বন্ধ কেন? বলেন তো কী বলছিলেন এতক্ষণ ধরে? মুখটা বন্ধ কেন এখন? দেশ কোথায়, গোপালী? গোপালগঞ্জ জেলার নামই বদলিয়ে যাবে বুঝছেন, গোপালগঞ্জ আর থাকবে না।”