পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ সহজ করার দাবি প্রবাসীদের

0
98
center for non resident bd
রাজধানীর সোনারগাঁ হোটেলে ‘সেন্টার ফর নন রেসিডেন্ট বাংলাদেশ’এর উদ্যোগে আয়োজিত ওয়ার্ল্ড কনফারেন্স সিরিজ ২০১৪'র সমাপনী সম্মেলন। ছবি- খালেদুল কবির নয়ন
center for non resident bd
রাজধানীর সোনারগাঁ হোটেলে ‘সেন্টার ফর নন রেসিডেন্ট বাংলাদেশ’এর উদ্যোগে আয়োজিত ওয়ার্ল্ড কনফারেন্স সিরিজ ২০১৪’র সমাপনী সম্মেলন। ছবি- খালেদুল কবির নয়ন

পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ সহজ করা ও স্বচ্ছ পরিচালনা নিশ্চিত করার আহ্বান জানিয়েছেন প্রবাসীরা। একইসাথে বাজার উন্নয়নে সিকিউরিটি এক্সচেঞ্জ কমিশন (এসইসি), বাংলাদেশ ব্যাংক ও অর্থমন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোর কার্যক্রম সমন্বয়ের দাবি জানিয়েছেন তারা।

শনিবার রাজধানীর সোনারগাঁ হোটেলে ‘সেন্টার ফর নন রেসিডেন্ট বাংলাদেশ’এর সমাপনী সম্মেলনে প্রবাসীদের পক্ষ থেকে এ দাবী জানানো হয়।

‘উন্নয়নের জন্য প্রবাসীদের মেধা, বিনিয়োগ ও রেমিটেন্স’ স্লোগানে অনুষ্ঠিত এ সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ড. আতিউর রহমান। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মার্কিন দুতাবাসের নব নিযুক্ত উপ মিশন প্রধান ডেভিড মিলি, তৈরি পোশাক প্রস্তুত ও রপ্তানিকারক সমিতি’র (বিজিএমইএ) সভাপতি আতিকুল ইসলাম প্রমুখ।

এতে সভাপতিত্ব করেন সেন্টার ফর নন রেসিডেন্ট বাংলাদেশের চেয়ারম্যান এস.এম সেকিল চৌধুরী।

প্রবাসীদের পক্ষে সেকিল আহমেদ বলেন, শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ পরিস্থিতির উন্নয়ন প্রবাসীদের প্রধান দাবি।

তিনি বলেন, প্রবাসীরা মিশনসেবার উন্নয়ন, দেশের ভাবমূর্তি উন্নয়নে উদ্যোগ গ্রহণ, বিনিয়োগ ও সম্পদ সুরক্ষায় আইনি সহযোগিতা, অহেতুক হয়রানি বন্ধ, সম্পত্তি জবর দখলের প্রবণতা রোধ এবং প্রেরিত রেমিটেন্সের ওপর নগদ আর্থিক প্রণোদনা চায়।

সেকিল আহমেদ বলেন, প্রবাসীরা এদেশে বিনিয়োগ করতে চায় কিন্তু অহেতুক হয়রানি এবং বিনিয়োগের ভাল পরিবেশ না থাকায় তারা বিনিয়োগে আগ্রহী হচ্ছেন না। এজন্য তিনি সরকারের কাছে বিনিয়োগের ভাল পরিবেশ তৈরির আহ্বান জানান।

একইসাথে বিনিয়োগ সহায়তার জন্য ‘প্রবাসী বিনিয়োগ কর্তৃপক্ষ’ গঠনেরও আহ্বান জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম জানান, মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সংযুক্ত আরব আমিরাতে স্বপ্ল সময়ের মধ্যে শ্রমিক ভিসার কার্যক্রম শুরু করা হবে।

তিনি আরও জানান, এজন্য খুব শিগগরিই একটি প্রতিনিধি দল দেশটি সফর করবে। আগামী ছয় মাসের মধ্যে মধ্যপ্রাচ্যের অন্যান্য দেশে শ্রমিক ভিসা কার্যক্রম শুরু হবে বলেও আশা প্রকাশ করেন তিনি।

গভর্নর আতিউর রহমান বলেন, বাংলাদেশের উন্নয়নে এনআরবি’দের ভূমিকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তাদের পাঠানো রেমিটেন্সের একটা বড় অংশ খরচ হয় গ্রামের কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে।

প্রসঙ্গত, বিভিন্ন দেশে বসবাসরত বাংলাদেশিদের নিয়ে চলতি বছরের ৪ মার্চ থেকে সেন্টার ফর নন রেসিডেন্ট সম্মেলনের আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হয়। মধ্যপ্রাচ্য, ইংল্যান্ড, আমেরিকা ও ইউরোপেসহ পৃথিবী বিভিন্ন দেশে এ নিয়ে ১৪টি সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

 

এসএই/