আত্মবিশ্বাস নিয়ে কাজ করতে হবে: সাবিরুল

0
79
sabirul
উদ্যোক্তা সাবিরুল-ফাইল ছবি
উদ্যোক্তা সাবিরুল- ফাইল ছবি
উদ্যোক্তা সাবিরুল- ফাইল ছবি

বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ নাগরিক সাবিরুল ইসলাম বলেন, বাংলাদেশকে কিছু দেওয়ার মত যোগ্যতা আপনাদের প্রত্যেকের মধ্যে আছে। সুতরাং সব নেতিবাচক চিন্তা ঝেড়ে ফেলে আত্মবিশ্বাস নিয়ে কাজ করুন।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ক্যারিয়ার ক্লাবের উদ্যোগে শনিবার বিকেল ৩টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিনস কমপ্লেক্সে ‘ইনস্পায়ার ওয়ান মিলিয়ন বাংলাদেশ’ কর্মসূচির অংশ হিসেবে আয়োজিত সেমিনারে তরুণ উদ্যোক্তা শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে এ কথা বলেন।

সাবিরুল বলেন, ডিগ্রি অর্জনই সফলতার চাবিকাঠি নয়। আপনি যেখানে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করবেন সেটা নিয়েই কাজ করবেন। আপনকে উদাহরণ সৃষ্টি করতে হবে এবং আপনি সেটা পারবেন। কারণ আপনি পৃথিবীর সমস্ত মানুষ থেকে আলাদা।

তিনি আরও বলেন, স্বপ্ন পূরণের পথে সামনে এগিয়ে যান নিজের মত করে। কে কি বলল তাতে যায় আসে না। অন্য কাউকে অনুকরণ করার দরকার নেই। নিজেকে আবিস্কার করুন এবং নিজেকেই অনুকরণ করুন। স্বপ্নপূরণে সব প্রতিবন্ধকতাকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিন।

সাবিরুল বলেন, আমরা যখন ব্যতিক্রম কিছু করতে যাই, তখন আমাদের পরিবার এবং সমাজ তাতে বাধা দেয়। এটাই হলো সমস্যা। আমাদের এ প্রতিবন্ধকতাকে মোকাবিলা করে সামনে এগিয়ে যেতে হবে। কেউ বলতে পারে, তুমি এটা পারবে না, তুমি ভুল পথে আছো। কিন্তু এসব কথায় কান না দিয়ে সফল হয়ে প্রমাণ করতে হবে আপনিই ঠিক।

ক্যারিয়ার ক্লাবের সভাপতি ইমরুল কবীর খানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন- বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. চৌধুরী সারওয়ার জাহান।

বিশেষ অতিথি ছিলেন মার্কেটিং বিভাগের অধ্যাপক ড. শাহ আজম সান্তনু, ক্যারিয়ার ক্লাবের উপদেষ্টা ও মার্কেটিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মাজেদুল ইসলাম, ক্যারিয়ার ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক সভাপতি সৈয়দ আবদুল্লাহ শাওন।

সেমিনারে ক্যারিয়ার ক্লাবের সদস্যসহ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩৫০ জন শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, সাবিরুল ইসলাম ২০১০ সালে পৃথিবীর ২৫ জন তরুণ শিল্পোদ্যোক্তার মধ্যে একজন নির্বাচিত হন। যুক্তরাজ্যের প্রভাবশালী ১০০ ব্রিটিশ-বাংলাদেশির তালিকায় তার নাম রয়েছে। ‘দ্য ওয়ার্ল্ড অ্যাট ইওর ফিট’ তার লেখা অন্যতম জনপ্রিয় একটি বই। তিনি বর্তমানে ‘ইন্সপায়ার ওয়ান মিলিয়ন’ কার্যক্রম চালাচ্ছে। যার লক্ষ্য বিশ্বজুড়ে ১০ লাখ তরুণ উদ্যোক্তা তৈরি করা।

এআর/সাকি