ঈদের ভ্রমণ প্যাকেজ ট্যুরিজম মেলায়

0
127
coxsbazar
ফাইল ছবি
cox's bazar
পর্যটকে মুখর কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত- ফাইল ছবি

ঈদুল আযহা উপলক্ষ্যে এশিয়ান ট্যুরিজম মেলায় অংশগ্রহণকারী দেশি-বিদেশি হোটেল, মোটেল, ট্যুরিজম প্রতিষ্ঠান ও পার্কগুলো ঈদে ভ্রমণের জন্য বিভিন্ন অফার দিচ্ছে। ভ্রমণ পিপাসুদের কাছে টানতে তাদের এই উদ্যোগ বলে জানা গেছে।

মেলায় অংশ নেওয়া ট্যুরিজম প্রতিষ্ঠাগুলোর কর্মকর্তারা জানান, ঈদের ছুটিতে মানুষ অন্য সময়ের চেয়ে একটু বেশি ঘুরে। এ সময় ভ্রমণ প্রেমীদের কাছে টানতেই প্রতিযোগিতার মাঠে নেমেছেন তারা।

এ প্রসঙ্গে হোটেল দ্যা কক্স টুডের স্টল সিনিয়র সহকারী মেনেজার এ এস এম হুমায়ুন কবির অর্থসূচককে বলেন, ঈদুল আযহা উপলক্ষে এই হোটেলে ২০ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় দেওয়া হচ্ছে ভ্রমণকারীদের। পাচঁতারকা মানের এই হোটেলে সব সময়ে ভ্রমণ প্রেমিদের ভিড় থাকে। তাদের সুবির্ধাথেই ঈদে একটু সুবিধা দেওয়া হলো।

এই হোটেলে উৎসব প্যাকেজে ২ জনের জন্য মানসম্মত রুমে থাকা-খাওয়াসহ নিচ্ছে ১৪ হাজার ৭শ টাকা, ফুর্তি প্যাকেজে ২ জনের জন্য থাকা-খাওয়াসহ নিচ্ছে ১৫ হাজার ৭শ টাকা, আর উদযাপন প্যাকেজে ৩ জনের জন্য থাক-খাওয়াসহ পড়বে ২২ হাজার ৮শ টাকা।

এদিকে ইউথ ট্যুরস অ্যান্ড ট্রাভেলার্স নিয়ে এলো ধামাকা অফার।এই কোম্পানিটি সুন্দরবনে ভ্রমণে ৩ দিন ৪ রাতের জন্য নিচ্ছে ৮ হাজার টাকা, সুন্দরবন-কুয়াকাটা ভ্রমণে ৪ দিন ৫ রাতের জন্য নিচ্ছে ৯ হাজার টাকা, কক্সবাজার-সেন্টমার্টিন ভ্রমণে ৪ দিন ৫ রাতের জন্য নিচ্ছে ৮ হাজার টাকা, মহাস্থানগড় ও পাহাড়পুরে ২ দিন ৩ রাত থাকার জন্য গুণতে হবে ৫ হাজার টাকা আর বান্দরবন- কক্সবাজার ভ্রমণে ৫ রাত ৪ দিনের জন্য নিচ্ছে ৮ হাজার টাকা।

এ ছাড়া যমুনা রিসোর্ট লিমিটেডও ভ্রমণপিপাসুদের জন্য রেখেছে ছাড়ের ব্যবস্থা। মেলায় দায়িত্বে থাকা কোম্পানিটির সিনিয়র ম্যানেজার মাহবুবুর রহমান বলেন, ঈদুল আযহা উপলক্ষে সকল প্যাকেজে ২৫ শতাংশ ছাড় দেওয়া হচ্ছে।

রাজধানীর বাড্ডা থেকে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ৩ দিন ব্যাপি এশিয়ান ট্যুরিজম ফেয়ারে এসেছেন রায়হান। সঙ্গে নিয়ে এসছেন পরিবারের সদস্যদেরকেও। তিনি বলেন, এবারের মেলার আয়োজন বেশ ভালো হয়েছে। কুরবানির ঈদে পরিবারের পছন্দমতো ভ্রমণ করার জন্য স্থান খুঁজছি। ভাল স্থান আর প্যাকেজ পেলে বুকিং দিয়ে যাবো।

পর্যটন বিচিত্রার আয়োজনে বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড (বিটিবি) ও বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশন (বিপিসি) মেলায় সার্বিক সহযোগিতা করছে।

এবারের মেলায় এয়ারলাইন্স, হোটেল, মোটেল, রিসোর্ট, ট্যুর অপারেটর, ট্রাভেল শপ, থিমপার্কসহ ১২০টি স্টল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

এই মেলার মাধ্যমে পর্যটনশিল্পের একটি পূর্ণাঙ্গ চিত্র দর্শনার্থীদের কাছে তুলে ধরার চেষ্টা করা হবে বলে জানিয়েছেন আয়োজকরা।

প্রতিদিন মেলা চলবে বেলা ১১টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত। মেলায় প্রবেশ মূল্য ২০ টাকা। শিক্ষার্থীদের জন্য মেলায় প্রবেশ ফ্রি।

 জেইউ/সাকি