নারীর ব্যথা কমাতে গাঁজা বেশি কার্যকর!

0
81
MARIJUANA
গাঁজা সেবন করছেন এক মার্কিন নারী

পশ্চিমা গবেষকরা ইদানিং গাঁজা নিয়ে বিস্তর গবেষণা করছেন। ইতোমধ্যে গবেষণায় তারা দেখিয়েছেন পরিমিত গাঁজা সেবন স্মৃতিশক্তি বাড়ায়, বিভিন্ন দুরারোগ্য ব্যাধিরও মহাষৌধ এটা। গাঁজা ব্যথা কমানোরও আশ্চর্য টনিক। এবার তারা বলছেন, চিকিৎসায় ব্যবহৃত গাঁজা নারী ও পুরুষদের মধ্যে ভিন্ন ধরনের প্রভাব সৃষ্টি করে।

MARIJUANA
গাঁজা সেবন করছেন এক মার্কিন নারী

যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন স্টেট বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা এক গবেষণায় আরও দেখেছেন, নারী সহজে পুরুষদের তুলনায় গাঁজার সহনশীলতা গড়ে তুলতে পারে এবং নারী শরীরে গাঁজার কার্যকারিতা বেশি।

এই গবেষণায় গাঁজার ব্যথা উপশমকারী প্রভাবের ওপর গুরুত্ব দেওয়া হয়। গবেষণাটি করা হয় পুরুষ এবং মেয়ে ইঁদুরের ওপর।কারণ মানুষের মতো ইঁদুরের একটি মাসিক চক্র আছে (২৮ দিনের পরিবর্তে এ রজঃচক্র ৪-৫ দিনের) এবং এক্ষেত্রেও ইঁদুরের শরীরে মানুষের মতো একইভাবে ওভারিয়ান হরমোন ওঠানামা করে।

ওয়াশিংটন স্টেট বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোবিজ্ঞান বিভাগের প্রধান ও এই গবেষণার প্রধান গবেষক রেবেকা ক্রাফট হাফিংটন পোস্টকে বলেন, গবেষণায় শুরুর দিনে মেয়ে ইঁদুর পুরুষের তুলনায় উচ্চ সংবেদনশীলতা দেখিয়েছে।

১০ দিন পর আমরা দেখতে পাই, ব্যথা কমাতে মেয়ে ইঁদুরের আরও উচ্চমাত্রার ডোজে সমস্যা হচ্ছে না। এর মানে দাঁড়াচ্ছে- মেয়ে ইঁদুর বেশি মাত্রায় গাঁজায় সহনশীলতা অর্জন করছে।

ক্রাফট মনে করেন, মানুষের ক্ষেত্রেও এর প্রভাব একই হবে। তারপরও মানুষের ওপর প্রয়োগ না করলে এর সত্যতা প্রশ্নবিদ্ধই থাকছে।

ক্রাফট বলেন, গবেষকরা এখন ক্রনিক ব্যথা কমাতে গাঁজার ওপর গুরুত্ব দিচ্ছেন। কারণ সারাজীবনে পুরুষের তুলনায় বেশি ব্যথায় ভোগেন নারী।

তিনি জানান, ১৯৬০ এবং ৭০ এর দশকেই গাঁজা ব্যথানাশক হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। বর্তমানে এর জনপ্রিয়তা অনেক বেশি। নারীদের বেদনানাশক ওষুধ হিসেবে গাঁজা ব্যাপক কার্যকরী ভূমিকা রাখবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

রেবেকা ক্রাফট বলেন, গাঁজা ব্যথার ভালো ওষুধ হলেও নারী শখের বশে তা বেশি মাত্রায় সেবন করলে বিপদ হতে পারে।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রে কলোরাডো, ওয়াশিংটনসহ ২৩ রাজ্যে চিকিৎসায় গাঁজার বৈধতা দেওয়া হয়েছে।

ইউএম/