বিশ্বকাপের আগেই ফিরতে চান আজমল!

0
74
Saeed-Ajmal
সাঈদ আজমল

২০১৫ সালে অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডে বিশ্বকাপে খেলতে চান সাইদ নিষিদ্ধ আজমল। বিশ্বকাপের আগে নিজের বোলিং অ্যাকশন শুদ্ধ করে আবার ক্রিকেটে ফেরার প্রতিজ্ঞা করেছেন ওয়ানডে র‌্যাংঙ্কিংয়ের এক নম্বরে থাকা এই অফ-স্পিনার।

_Saeed_Ajmal
সাঈদ আজমল

ফয়সালাবাদে নিজের বাড়িতে আজমল বললেন, ‘আমার কনুই স্বাভাবিক নয়। এ কারণে এটি আমি স্বাভাবিক ১৫ ডিগ্রির চেয়ে বেশি বাঁকা করি। শিগগির আমরা এ সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল করব। আগামী বছর বিশ্বকাপে খেলব, এটাই আমার প্রতিজ্ঞা।’

অবশ্য ২০১৫ সালের ফেব্রুয়ারিতে বিশ্বকাপ শুরু হওয়ায় নিজেকে শুধরানোর জন্য বিশ্বকাপের আগে ৫ মাস সময় পাবেন তিনি।

আগামী মাসে ৩৭ বছরে পা দিতে চলা আজমল নিজের বোলিং অ্যাকশন শুধরাতে সাবেকদের শরণাপন্ন হবেন।

আজমল বলেন, বিশ্বকাপে খেলা এবং পাকিস্তানের হয়ে ভালো করা আমার স্বপ্ন এবং এটা আমি ছেড়ে দিতে পারি না।

পাকিস্তানের সাবেক কোচ ডেভ হোয়াটমোর এক টুইটার বার্তায় লিখেছেন, আজমলের নিষিদ্ধ হওয়ার খবর শুনে খারাপ লাগল… প্রথমে মনে করেছিলাম দুসরার কারণে সে এই সমস্যায় পড়েছে, তাই বলে ওর পুরো বোলিং অ্যাকশনটাই বেআইনি? আশা করি ২০১৫ বিশ্বকাপের আগে সে নিজেকে শুধরে নিতে পারবে।

প্রসঙ্গত, আজমল সব সময় ফুলহাতা জার্সি পরে বোলিং করেন। তার পরও সাদা চোখে তার বোলিং অ্যাকশন সংশয় তৈরি করেছে। বিশেষ করে দুসরা ও জোরের ওপর করা বলগুলোতে।

গত মাসে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে গল টেস্টে তার বোলিং অ্যাকশনে ত্রুটি খুঁজে পেয়েছিলেন আম্পায়ার ইয়ান গোল্ড ও ব্রুস অক্সেনফোর্ড। ৩৫ টেস্ট খেলে ১৭৮টি উইকেট নেওয়া আজমলকে পাকিস্তান দলের বোলিংয়ের প্রধানতম অস্ত্র হিসেবে বিবেচনা করা হয়। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তার বোলিং নিষিদ্ধ হওয়াটা পাকিস্তান ক্রিকেটের বিরাট এক ধাক্কা।

ইউএম/