চিরতরে দূরে ফিরোজা

0
79
FEROZA
ফিরোজা বেগম
FEROZA
ফিরোজা বেগম

স্বাধীনতা পদক ও একুশে পদকপ্রাপ্ত বিশিষ্ট নজরুল সংগীতশিল্পী ফিরোজা বেগম অার নেই। ৮৪ বছর বয়সী এই শিল্পী রাজধানীর অ্যাপোলো হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত সাড়ে ৮টার দিকে মারা গেছেন। (ইন্নালিল্লাহি…রাজিউন)।

মা ফিরোজা বেগমের মৃত্যুর খবর সাংবাদিকদের জানিয়েছেন ছেলে হামিন। মায়ের জন্য তিনি সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন।

চিকিৎসকদের মতে, ফিরোজা বেগম হৃদযন্ত্র ও কিডনি সক্রান্ত জটিলতায় ভুগছিলেন। পাশাপাশি তাঁর শরীরে জন্ডিস ধরা পড়েছিলো।

গত সপ্তাহে ফিরোজা বেগমকে রাজধানীর এ্যাপোলো হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। কিছুটা সুস্থ হওয়ার পর গত বুধবার তাকে বাসায় নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু আবারও অসুস্থ হয়ে পড়ায় গত শুক্রবার তাকে পুনরায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এরপর আজ মঙ্গলবার তিনি হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন।

২৮ জুলাই, ১৯৩০ খ্রিস্টাব্দে গোপালগঞ্জের ঘোনাপাড়ায় (তৎকালিন ফরিদপুর জেলা) তিনি জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবার খান বাহাদুর মোহাম্মদ ইসমাইল। মা বেগম কওকাবুন্নেসা বিয়ে। ১৯৫৫ সালে বিখ্যাত সুরকার কমল দাশগুপ্তের সাথে তার বিয়ে হয়। তাহসিন আহমেদ, হামিন আহমেদ ও শাফিন আহমেদ তার ৩ সন্তান।

১৯৪২ সালে, বিখ্যাত গ্রামোফোন কোম্পানি এইচএমভি থেকে তার প্রথম রেকর্ড বের হয়। ১৯৪৯ সালে তার কণ্ঠে নজরুলের সঙ্গীতের প্রথম রেকর্ড প্রকাশিত হয়।

এই নজরুল সঙ্গীত সম্রাজ্ঞী স্বাধীনতা পুরস্কারসহ শিল্পকলা একাডেমী পুরস্কার, শ্রেষ্ঠ টিভি শিল্পী পুরস্কার (পাকিস্তান এবং বাংলাদেশে), নাসিরউদ্দিন স্বর্ণপদক, স্যার সলিমুল্লাহ স্বর্ণপদক, দীননাথ সেন স্বর্ণপদক, সত্যজিৎ রায় স্বর্ণপদক, বাচসাস পুরস্কার, সিকোয়েন্স পুরস্কার, চ্যানেল আই আজীবন সম্মাননা, পশ্চিমবঙ্গ সরকারের নজরুল সম্মাননা, মেরিল প্রথম আলো আজীবন সম্মাননা পেয়েছেন।

এস রহমান/