৫ উইকেট নেই নিউজিল্যান্ডের

টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে ফিন অ্যালেন আক্রমণাত্মক সূচনা। দুই ওভারে স্কোরবোর্ডে ১৬ রান, প্রথম ওভারেই আসে ১১। উইকেট থেকে স্পিনাররা বড় কোন সুবিধা না পাওয়ায় মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ বল তুলে দিলেন মুস্তাফিজুর রহমানের হাতে।

আর তাতেই ব্যাকফুটে নিউজিল্যান্ড। ওভারের প্রথম বলেই ফেরালেন অ্যালেনকে, পরের ৫ বল ডট দিয়ে নিলেন উইকেট মেইডেন। ক্রিজে নেমে প্রথম ৫ বলে কোন রান না নেয়া উইল ইয়াং রাবিন্দ্রাকে নিয়ে স্কোরবোর্ডে রান বাড়াতে থাকেন।

পাওয়ার প্লে শেষে কিউইরা স্কোরবোর্ডে তোলে ৪০ রান। তবে সপ্তম ওভারে বোলিংয়ে এসে উইল ইয়াং এবং কলিন ডি গ্রান্ডহোমকে লেগ বিফরের ফাঁদে ফেলেন মোহাম্মাদ সাইফউদ্দিন। দ্রুত ২ উইকেট হারানোর পর রবিন্দ্র এবং টম ল্যাথাম মিলে হাল ধরার চেষ্টা করলেও মাহমুদউল্লাহ’র দারুণ এক ফ্লাইট ডিলেভারিতে বোল্ড হন রবিন্দ্র। ২০ বলে ২০ রান করেন তিনি। এরপরের ওভারেই শেষ মেহেদির বলে কট অ্যান্ড বোল্ড হন ল্যাথাম।

এদিকে প্রথম দুই ম্যাচ জিতে ইতোমধ্যে ২-০ তে এগিয়ে বাংলাদেশ। সিরিজে জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নামা ম্যাচে একাদশে কোন পরিবর্তন আনেনি টাইগাররা। রাসেল ডমিঙ্গোর কথা অনুযায়ী সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে কিপিং করার কথা ছিল মুশফিকুর রহিমের। যদিও এদিন কিপিং করবেন না তিনি। মুশফিকের বদলি হিসেবে এদিন উইকেটের পেছনে দেখা যাবে প্রথম দুই ম্যাচে কিপিং করা নুরুল হাসান সোহানকে।

বাংলাদেশ কোন পরিবর্তন না আনলেও নিউজিল্যান্ড একাদশে তিনটি পরিবর্তন এসেছে। করোনা জয় করে টম ব্লান্ডেলের পরিবর্তে একাদশে সুযোগ পেয়েছেন ফিন অ্যালেন। এ ছাড়া বেন সিয়ার্স ও হামিশ বেনেটের জায়গায় একাদশে সুযোগ পেয়েছেন স্কট কুগেলিন ও জ্যাকব ডাফি।

অর্থসূচক/এএইচআর