বিদেশি বিনিয়োগ ১৪৫ শতাংশ বেড়েছে

dollar
মার্কিন ডলার (ফাইল ছবি)

ডলারচলতি বছর দেশের পুঁজিবাজারে বিদেশি বিনিয়োগে বড় উল্লম্ফন হয়েছে।গত নভেম্বর মাস পর্যন্ত ১১ মাসে নেট বিদেশি বিনিয়োগ বেড়েছে ১৪৫ শতাংশ। ডিসেম্বর মাসেও একই ধারা বজায় আছে বলে ডিএসই সূত্রে জানা গেছে। তবে গতকাল পর্যন্ত বিনিয়োগের পরিসংখ্যান পাওয়া যায়নি।

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে জানা গেছে, নভেম্বর পর্যন্ত সময়ে দেশের পুঁজিবাজারে নিট বিনিয়োগ হয়েছে এক হাজার ৯৪৩ কোটি টাকার। আগের বছর  ডিসেম্বর পর্যন্ত  নিট বিনিয়োগ হয়েছিল ৭৯২ কোটি টাকার।

চলতি বছর ডিসেম্বর পর্যন্ত বিদেশী বিনিয়োগকারীরা ডিএসইর ব্রোকারদের মাধ্যমে দুই হাজার ৬৫২ কোটি টাকা মূল্যের শেয়ার কিনেছে। আগের বছর তারা এক হাজার ৩৪৮ কোটি টাকা মূল্যের শেয়ার কিনেছিল। আগের বছরের ১২ মাসের তুলনায় চলতি বছরের ১১ মাসে বিদেশি বিনিয়োগকারীরা এক  হাজার ৩০৪ কোটি টাকার বেশি মূল্যের শেয়ার কিনেছে। এ হিসেবে তাদের শেয়ার কেনার পরিমাণ বেড়েছে প্রায় ৯৭ শতাংশ।

গত ১১ মাসে বিদেশিরা ৭০৮ কোটি টাকার শেয়ার বিক্রি করেছে। আগের বছরে ডিসেম্বর পর্যন্ত সময়ে শেয়ার বিক্রির পরিমাণ ছিল ৫৫৫ কোটি টাকা।

বাজার বিশ্লেষকরা মনে করেন, বাজারে শেয়ারের যৌক্তিক মূল্যস্তরের কারণে বিদেশি বিনিয়োগকারীরা নতুন করে আকৃষ্ট হয়েছে। আগের বছরও শেয়ারের দাম কাছাকাছি পর্যায়ে ছিল। তবে ২০১০ সালের বড় ধাক্কা সামলে উঠতে না পারায় স্থানীয় বিনিয়োগকারীদের মধ্যে আস্থার সংকট ছিল। এ কারণে বিদেশি বিনিয়োকারীরাও বেশি আস্থানবান হতে পারেনি। বাংলাদেশের অর্থনীতির ধারাবাহিক উচ্চ প্রবৃদ্ধিও তাদেরকে এ বাজারের প্রতি আগ্রহী করেছে। এছাড়া বেশ কিছুদিন ধরেই কয়েকটি মার্চেন্ট ব্যাংক বিদেশি বিনিয়োগ নিয়ে আসার জন্য চেষ্টা করছে। সে চেষ্টার ফল ফলতে শুরু করেছে।