১ জানুয়ারি থেকে অনির্দিষ্টকালের অবরোধ

Oborodh_strikeএবার অনির্দিষ্টকালের অবরোধের ডাক দিল বিএনপি নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় জোট।বিএনপি চেয়ারপারসনের আইন উপদেষ্টা ব্যারিস্টার মাহবুব হোসেন সোমবার সন্ধ্যায় এক সংক্ষিপ্ত সংবাদ সম্মেলন থেকে এই অবরোধ কর্মসূচির ঘোষণা দেন।

সেই সাথে আগামিকাল ৩১ ডিসেম্বর সারা দেশে বিক্ষোভ কর্মসূচিরও ডাক দেওয়া হয়েছে।

ধারনা করা হচ্ছে ন্যূনতম আগামি ৫ জানুয়ারি পর্যন্ত এই অবরোধ অব্যাহত থাকবে।

৫ জানুয়ারি নির্বাচন কমিশন ঘোষিত তফসিল অনুসারে দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন হওয়ার কথা রয়েছে এই নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ও এর সমমনা দলগুলো অংশ নিলেও প্রধান আরেক রাজনৈতিক জোট ১৮ দলীয় জোট এতে অংশ নিচ্ছে না। বরং এই নির্বাচনকে প্রহসনমূলক বলে তারা তা বয়কট করেছে। সেই সাথে এই নির্বাচন প্রতিহতেরও ঘোষণাও দিয়েছে জোটটি।

এরই ধারাবাহিকতায় গত বেশ কয়েকদিন ধরে নানা ধরনের কর্মসূচি দেয় ১৮ দল। সর্বশেষ গত ২৯ ডিসেম্বর তারা ‘মার্চ ফর ডেমোক্রেসি’ নামে ঢাকায় মহাসমাবেশের ডাক দেয়। বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ওই কর্মসূচির ঘোষণা দেন। কিন্তু তার পর থেকেই কার্যত নিজ বাসভবনে অবরুদ্ধ অবস্থায় রয়েছেন তিনি।

আর এদিকে আওয়ামী লীগের অঙ্গ সংগঠন চালক লীগের ডাকা টানা পরিবহন ধর্মঘটে রাজধানী সারা দেশ থেকেই বিচ্ছিন্ন রয়েছে। শুধু চালক লীগই নয় রাজধানীতে দলটির সকল অঙ্গ সংগঠনই  ‘মার্চ ফর ডেমোক্রেসি’ প্রতিহতের ঘোষণা দিয়ে মাঠে নামে।

এই অবস্থায় টানা দ্বিতীয় দিনের মতো একই কর্মসূচি দিয়েও সফল করতে পারেনি জোটটি। তাদের কোনো নেতাকর্মীকে নামতে দেওয়া হয়নি মাঠে। গত তিন দিনে আটক করা হয়েছে জোটের শতাধীক নেতাকর্মীকে।