ডিএসইতে ছয় খাতের সেঞ্চুরি

dse
ডিএসই লোগো

dseসোমবার বছরের শেষ কার্যদিবসে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই)ছয়টি খাতে সেঞ্চুরি করেছে। এসব খাতের যতগুলো কোম্পানির শেয়ার কেনাবেচা হয়েছে, তার সবগুলোর দাম বেড়েছে। খাতগুলো হচ্ছে ব্যাংক,সিমেন্ট, পেপার অ্যান্ড প্রিন্টিং, সেবা ও আবাসন, টেলিকমিউনিকেশন এবং ভ্রমণ ও অবসর।

সোমবার ডিএসইতে ব্যাংক খাতের ৩০টি, সিমেন্ট খাতের ৭টি,পেপার অ্যান্ড প্রিন্টিং খাতের একটি,সেবা ও আবাসন খাতের ৩ টি,টেলিকমিউনিকেশন খাতের ২টি এবং ভ্রমণ ও অবসর খাতের কোম্পানির মধ্যে সবগুলোর দর বেড়েছে।

ব্যাংক খাতের কোম্পানিগুলোর মধ্যে এবি ব্যাংক লিমিটেডের শেয়ারের দর বেড়েছে ৮০ পয়সা বা ৩ দশমিক ১৩ শতাংশ। আল আরাফা ইসলামী ব্যাংকের শেয়ারের দর ২০ পয়সা বা ১ দশমিক ০৫ শতাংশ,ব্যাংক এশিয়া লিমিটেডের ৬০ পয়সা বা ২ দশমিক ৬৩ শতাংশ, ব্র্যাক ব্যাংক লিমিটেডের ২০ পয়সা বা দশমিক ৬৩ শতাংশ, সিটি ব্যাংকের ৪০ পয়সা বা ২ দশমিক ০১ শতাংশ, ঢাকা ব্যাংকের ৫০ পয়সা বা ২ দশমিক ৭২ শতাংশ, ডাচ্ বাংলা ব্যাংকের ৯০ পয়সা বা দশমিক ৮৭ শতাংশ, ইস্টার্ন ব্যাংকের ১ টাকা ৬০ পয়সা বা ৫ দশমিক ৮২ শতাংশ, এক্সিম ব্যাংকের ৫০ পয়সা বা  ৪ শতাংশ,ফার্স্ট সিকিউরিটি ব্যাংকের ৩০ পয়সা বা ২ দশমিক ০১ শতাংশ,আইসিবি ইসলামিক ব্যাংকের ১০ পয়সা বা ১ দশমিক ৬৭ শতাংশ, আইএফআইসি ব্যাংকের  ১০ পয়সা বা দশমিক ২৯ শতাংশ, ইসলামী ব্যাংকের ৪০ পয়সা বা ১ দশমিক ১৮ শতাংশ,যমুনা ব্যাংকের ৩০ পয়সা বা ১ দশমিক ৮৯ শতাংশ, র্মাকেন্টাইল ব্যাংকের ২০ পয়সা বা ১ দশমিক ২১ শতাংশ,মিউচ্যুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকের ৪০ পয়সা বা ২ দশমিক ৫৩ শতাংশ, এনবিএলের ৩০ পয়সা বা ২ দশমিক ৫৬ শতাংশ,এনসিসি ব্যাংকের ১০ পয়সা বা  দশমিক ৭৭ শতাংশ,ওয়ান ব্যাংকের ২০ পয়সা বা ১ দশমিক ২৭ শতাংশ, প্রিমিয়ার ব্যাংকের ৩০ পয়সা বা ২ দশমিক ৮০ শতাংশ, প্রাইম ব্যাংকের ১ টাকা ৪০ পয়সা বা ৫ দশমিক ৬০ শতাংশ,পূবালী ব্যাংকের ৩০ পয়সা বা দশমিক ৯৩ শতাংশ, রূপালি ব্যাংকের   ৬০ পয়সা বা এক দশমিক ৯৩ শতাংশ,শাহজালাল ইসলামী ব্যাংকের ২০ পয়সা বা ১ দশমিক ২০ শতাংশ,সোস্যাল ইসলামী ব্যাংকের ৩০ পয়সা বা ২ দশমিক ৩১ শতাংশ,সাউথইস্ট ব্যাংকের ৩০ পয়সা বা ১ দশমিক ৬৯ শতাংশ,স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংকের ২০ পয়সা বা ১ দশমিক ৩৬ শতাংশ,ট্রাস্ট ব্যাংকের ৬০ পয়সা বা ৩ দশমিক ০৩ শতাংশ,ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের ৫০ পয়সা বা ২ দশমিক ০২ শতাংশ এবং উত্তরা ব্যাংকের ৭০ পয়সা বা ২ দশমিক ২৮ শতাংশ শেয়ারের দর বেড়েছে।

 

সিমেন্ট খাতের আরামিট সিমেন্টের শেয়ারের দর বেড়েছে ২ টাকা ৪০ পয়সা বা ২ দশমিক ৯১ শতাংশ। এছাড়া কনফিডেন্স সিমেন্টের ১ টাকা ৫০ পয়সা বা ১ দশমিক ২২ শতাংশ, হাইডেলবার্গ সিমেন্টের ৪ টাকা ৭০ পয়সা বা ১ দশমিক ২৫ শতাংশ, লাফার্জ সুরমা সিমেন্টের ৫০ পয়সা বা ১ দশমিক ৫১ শতাংশ,মেঘনা সিমেন্টের ৫ টাকা ৭০ পয়সা বা ৪ দশমিক ১৪ শতাংশ,এম আই সিমেন্টের ৯০ পয়সা বা ১ দশমিক ১৪ শতাংশ এবং প্রিমিয়ার সিমেন্টের ৪০ পয়সা দশমিক ৪‌১ শতাংশ শেয়ারের দর বেড়েছে।

পেপার অ্যান্ড প্রিন্টিং খাতের হাক্কানী পাল্প অ্যান্ড পেপারের শেয়ার দর বেড়েছে ৬০ পয়সা বা ১ দশমিক ৭৪ শতাংশ।

সেবা ও আবাসন খাতের ইস্টার্ন হাউজিংয়ের শেয়ার দর বেড়েছে ৯০ পয়সা বা ১ দশমিক ৮৬ শতাংশ। এছাড়াও সমরিতা হাসপাতালের ৮০ পয়সা বা দশমিক ৯২ শতাংশ এবং সামিট অ্যালায়েন্স পোর্ট লিমিটেডের ৩০ পয়সা বা ১ দশমিক ০১ শতাংশ শেয়ার দর বেড়েছে।

টেলিকমিউনিকেশন খাতের বাংলাদেশ সাবমেরিন কেবল কোম্পানি লিমিটেডের ৮ টাকা ৪০ পয়সা বা ৫ দশমিক ২৮ এবং গ্রামীণফোনের শেয়ারের দর ১ টাকা ৪০ পয়সা বা দশমিক ৭২ শতাংশ বেড়েছে।

ভ্রমণ এবং অবসর খাতের ইউনিক হোটেল অ্যান্ড রিসোর্টস লিমিটেডের ৩০ পয়সা বা দশমিক ৩৯ শতাংশ এবং ইউনাইটেড এয়ারওয়েজ বাংলাদেশ লিমিটেডের শেয়ার দর বেড়েছে ১০ পয়সা বা দশমিক ৬১ শতাংশ।

এমআরবি/