থার্টিফাস্ট নাইটে সব ধরণের সভা-সমাবেশ নিষিদ্ধ: ডিএমপি

DMP

ডিএমপিথার্টিফাস্ট নাইটে সব ধরণের সভা-সমাবেশ নিষিদ্ধ করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)। মঙ্গলবার (৩১ ডিসেম্বর) রাতে রাজধানীতে কোনো ধরণের সভা-সমাবেশ করতে দেওয়া হবে না বলে জানিয়েছে ডিএমপি। দেশের চলমান পরিস্থিতি এবং নগরবাসী সাধারণ মানুষের  নিরাপত্তার স্বার্থে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

আজ সকালে ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে কমিশনার বেনজির আহমেদ নির্দেশিত সব ধরণের নিয়ম মেনে চলতে রাজধানীবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

এ সময় বেনজির জানান, থার্টিফাস্ট নাইটে আনন্দ উল্লাসের নামে নাশকতারোধে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা রাজধানীতে সর্বত্র সতর্ক অবস্থায় থাকবে। কোনো ধরণের অপ্রিতিকর ঘটনায় কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। বিভিন্ন ক্রসিং, ট্রাফিক মোড়সহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলোতে অতিরিক্ত চেকপোস্ট বসানো হবে।

ডিএমপির পক্ষ থেকে ঢাকাবিশ্ববিদ্যালয়, বনানী, গুলশান, বারিধারা এলাকায় বসবাসরত সকল নাগরিককে থার্টিফাস্ট নাইটের রাতে ৮টার আগে বাসাবাড়িতে ফিরে যেতে অনুরোধ জানানো হয়েছে। ঢাবি এলাকায় সবাইকে পরিচয়পত্র দেখিয়ে চলাফেরা করতে বলা হয়েছে। এছাড়া রাত ৮টার পর কাউকে হাতিরঝিল এলাকায় প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না।

ডিএমপির নির্দেশনা অনুযায়ী আগামিকাল রাত ৮টার পর বনানী ক্রসিং ছাড়া বারিধারার ডিপ্লোম্যাটিক জোনকে ঘিরে থাকা সবগুলো ক্রসিং বন্ধ করে দেওয়া হবে। রাত ৮টার পরে এসব এলাকা দিয়ে কেউ চলাচল করতে পারবে না। থার্টিফাস্ট নাইটের রাতে সব ধরণের আগ্নেয়াস্ত্র ব্যাবহার করতে নিষেধ করা হয়েছে এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রবেশ করতে চাইলে রাত ৮টার পর পলাশীর ক্রসিং ছাড়া অন্য পথে চলাচল করা যাবে না।