জীবনে একবার করা উচিত ১০ ভুল!
শুক্রবার, ৫ই জুন, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » লাইফস্টাইল

জীবনে একবার করা উচিত ১০ ভুল!

man-woman-upsetব্যাপারটা কেমন উদ্ভুত শোনাচ্ছে তাই না! অদ্ভূত হলেও কিন্তু সত্যি। কারণ আপনি যদি জীবনে কোনো ভুলই না করেন তাহলে শিখবেন কেমনে? আর না শিখলে শুদ্ধটাও আপনার কাছ থেকে অনেক দূরে পালিয়ে যাবে। তাই জীবন থেকে শিক্ষা নেওয়ার জন্য হলেও একবার ভুল করা উচিত।

আপাতদৃষ্টিতে ভুলগুলো খুবই ছোট। এসব করলে তেমন একটা ক্ষতি হয় না। তাই শেখার জন্য হলেও জীবনে একবার ভুলগুলো করা উচিত।

এবার অর্থসূচক পাঠকদের জন্য সেই ১০ ভুলের কথা জানিয়ে দেওয়া হলো:

এক. মিথ্যা বলে ধরা খাওয়া:

মিথ্যা কমবেশি সবাই বলেন। কিন্তু জীবনে যে একবার মিথ্যা বলে ধরা পড়েন ও বিব্রতকর অবস্থায় পড়েন, তার অহেতুক মিথ্যা বলার অভ্যাস একেবারেই চলে যায়।

দুই. ভুল মানুষের প্রেমে পড়া:

জীবনে সবাই একবার ভুল মানুষের প্রেমে পড়েন। আর তারপরই বুঝতে পারেন, নিজের জীবনে ঠিক কেমন মানুষ চাই তার। কেমন মানুষের সাথে তিনি ভালো থাকবেন- এ উপলব্ধিটাও তখন তার মাঝে ভালোভাবেই আসে।

তিন. ভুল মানুষকে বিশ্বাস করা:

ভুল মানুষকে বিশ্বাস করে না ঠকলে আসলে আপন মানুষগুলোর মূল্য বোঝা যায় না। ভুল মানুষেরা বিশ্বাসঘাতকতা করে বলেই বিশ্বাসের মূল্যটা স্পষ্ট হয়ে ওঠে।

চার. আজেবাজে খাবার খেয়ে অসুস্থ হওয়া:

আজেবাজে খাদ্যাভ্যাসের জন্য অসুস্থ হয়ে জীবনে একটু ভোগাই উচিত। কারণ তাহলে আপনি সুস্বাস্থ্য রক্ষায় সচেতন হবেন। শুধু তাই নয়, বাজে খাবারের খারাপ প্রভাবটা চিনবেন আপনি।

পাঁচ. একবার অতিরিক্ত খরচ করা:

জীবনে একবার অতিরিক্ত খরচে উল্টাপাল্টা জিনিস কিনে ফেলুন। কারণ এই শিক্ষাটা পরবর্তীতে টাকার মূল্যমান সম্পর্কে আপনাকে শেখাবে।

ছয়. একটা বাজে চাকরি করা:

একটা বাজে চাকরি করতে গিয়ে যে অভিজ্ঞতা হয়, সেটা আসলে বাকি জীবন কর্মক্ষেত্রে ভীষণ কাজে লাগে।

সাত. অন্যের উপকার করতে গিয়ে কষ্ট পাওয়া:

কেবল এতেই আপনি বুঝবেন সবার উপকার করতে নেই। তাদের উপকার করা উচিত যে সবসময় আপনার ভালো চায়। বিপদে-আপদে আপনার পাশে দাঁড়ায়।

আট. জমানো টাকা খরচ করা:

সঞ্চয় বা টাকা জমানোর দিকে আসলে বেশি মনোযোগী হওয়া উচিত। কারণ একটা টাকাও সঞ্চয় না থাকলে নিজেকে অনেক বেশি অসহায় মনে হয়। এটি আপনাকে সেই শিক্ষাটাই দেবে।

নয়. মা-বাবার কথা না শুনে বিপদে পড়া:

একটা নির্দিষ্ট বয়সের পর মা বাবার কথা কেউ শুনতেই চায় না। এ সময় তারা ভুলে যায়, মা বাবার অভিজ্ঞতা তার চাইতে অনেক বেশি। তাই একবার মা বাবার অবাধ্য হয়ে বিপদে পড়াই উচিত। চোখ খুলে যাবে এতে।

দশ. ক্ষতিকর বন্ধুকে আঁকড়ে ধরা:

ক্ষতিকর বন্ধুকে আঁকড়ে ধরে রাখলে একদিন না একদিন সেটা খেল দেখাবেই। প্রতারিত হবেন, ক্ষতিগ্রস্থ হবেন। তাহলে এক সময়ে সহজেই বুঝবেন কাদের সাথে আপনার বন্ধুত্ব করা উচিত।

এএসএ/

এই বিভাগের আরো সংবাদ