আন্দোলনের নামে গাছ কাটা হয়েছে ৫০ কোটি টাকার!

ছবি: ফাইল ছবি
ছবি: ফাইল ছবি

একবছর রাজনৈতিক আন্দোলনের নামে সারা দেশে যে গাছ কাটা হয়েছে তার বর্তমান বাজারমূল্য ৫০ কোটি টাকা। তবে এসব গাছসমূহের সদূর প্রসারী আর্থিক মূল্য আরো বেশী। এ ক্ষতি পুষিয়ে উঠতে কমপক্ষে ৩০ বছর সময় প্রয়োজন। ‘প্রকৃতি প্রাণ রক্ষায় জেগে উঠুক মানবিক প্রাণ’ এই শ্লোগানকে সামনে রেখে রাজনৈতিক আন্দোলনের নামে নির্বিচারে গাছ নিধনের প্রতিবাদে মানববন্ধন কর্মসূচিতে বক্তারা এসব কথা বলেন।

শুক্রবার বিকেলে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সামনে চট্টগ্রামের পরিবেশবাদী ও মানবাধিকার সংগঠন বাংলাদেশ ইয়ুথ এনভায়রনমেন্ট সেফগার্ড (বি-ইয়েস), ইকোফ্রেন্ডস, সংশপ্তক, আইএসডিই-বাংলাদেশ ও ক্যাব-চট্টগ্রাম এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে।

বিগত একবছর যাবৎ রাজনৈতিক আন্দোলনের নামে লক্ষাধিক গাছ কাটা হলেও বন বিভাগ ও সরকারী আইন প্রয়োগকারী সংস্থা নিশ্চুপ থাকায় এসময়  ক্ষোভ প্রকাশ করেছে বক্তারা।

মানববন্ধনে বক্তারা আরো  বলেন,  এভাবে চলতে থাকলে সারা দেশ মরুভুমিতে পরিনত হবে। যার মাশুল দিতে হবে পুরো জাতীকে। পরিবেশের প্রতিটি উপাদানের সঙ্গে মিশে আছে আমাদের অস্তিত্ব । আর তাই মানুষসহ সব প্রাণীর জন্য পরিবেশ সংরক্ষণ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। গাছ পরিবেশের অন্যতম প্রধান উপাদান যা সকল প্রাণীর জন্য যোগান দেয় প্রয়োজনীয় অক্সিজেন। কিন্তু সম্প্রতিক সময়ে আমরা দেখতে পাচ্ছি রাজনৈতিক কর্মসূচি পালনের নামে গাছ কেটে রাস্তা অবরোধ করে ধ্বংস করছে প্রকৃতির এই মূল্যবান সম্পদকে।

বিগত কয়েক মাসে সারা দেশজুড়ে রাজনৈতিক দূর্বাত্তায়নের বলি হয়েছে কয়েক লাখ গাছ। যেখানে একটি দেশে স্বাভাবিক বাস্তুসংস্থানিক ভারসাম্য বজায় রাখার জন্য কমপক্ষে ২৫ ভাগ বনভূমি থাকা বাঞ্জনীয় সেখানে জনসংখ্যার আধিক্যে ও নানাবিধ কারণে বাংলাদেশের বনভূমি প্রয়োজনের তুলনায় অত্যন্ত নগণ্য। তার উপর প্রতি বছর বাড়তি জনসংখ্যার চাহিদা পূরণে প্রতিদিন কমছে বৃক্ষের পরিমাণ।

উত্তম কুমার আচার্য্য সভাপতিত্বে স্বাগত বক্তব্য রাখেন,পরিবেশবিদ ও জলবায়ূ গবেষক ম. আবদুর রহমান রানা।  অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের  মধ্যে বক্তব্য রাখেন, চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ দক্ষিণ জেলার সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান, চট্টগ্রাম সরকারী কলেজের অধ্যাপক ইউনুস হাসান, চট্টগ্রাম হাজী মোহাম্মদ মহসিন কলেজের অধ্যাপক ইদ্রিস আলী,  কাউন্সিলর রেখা আলম, গিয়াস উদ্দিন,  ট্রেড ইউনিয়নের চট্টগ্রামের সভাপতি তপন দত্ত, সংসপ্তকের সৌরভ বড়ূয়া, পরিবেশবিদ আবুল মনসুর হাবিব,শামসুদ্দিন শিশির, নারী নেত্রী জেসমিন সুলতানা পারু, আবিদা আজাদ প্রমুখ।