ফরিদপুরে প্রতিবন্ধীদের কর্মসংস্থান ও সরকারি চাকরির কোটা বাস্তবায়নের দাবি

Faridpur

Faridpurফরিদপুরের প্রতিবন্ধী নারীরা কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি ও সরকারী চাকরির কোটা বাস্তবায়নের দাবি জানিয়েছেন। আজ শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১ টায় ফরিদপুর প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে তারা এ দাবী জানায়।

হ্যান্ডিক্যাপ ইন্টারন্যাশনাল এর সহযোগিতায় ‘আস্থা প্রতিবন্ধী নারী পরিষদ’ এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে।

প্রতিবন্ধী নারী সংগঠনগুলোর দাবি, সরকারি চাকরিতে প্রতিবন্ধী ব্যক্তির কোটা বাস্তবায়ন নিশ্চিত করতে হবে। চাকরির নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে প্রতিবন্ধীদের কোটা সুস্পষ্টভাবে উল্লেখ থাকতে হবে। বিসিএস ক্যাডার হিসাবে এক শতাংশ কোটা প্রতিবন্ধীদের জন্য বাস্তবায়ন করতে হবে। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে কর্মসংস্থানের সুযোগ বৃদ্ধি করতে হবে। কর্মসংস্থানমূলক কারিগরি ও ভকেশনাল প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা, প্রশিক্ষণ শেষে পুঁজি সহায়তার জন্য  জামানত বিহীন ও সহজ শর্তে ঋণ এর ব্যবস্থা করতে হবে। ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা বিকাশে পিকেএসএফ এসএমই ফাউন্ডেশন ও রাষ্টয়ত্ব ব্যাংক থেকে প্রতিবন্ধী ব্যক্তি ও সংগঠনসমুহকে ঋণ দানের ব্যবস্থা করতে হবে। ইউনিয়ন ভিত্তিক ক্ষুদ্র ও মাঝারী কুটির শিল্প তৈরী করে প্রতিবন্ধী ব্যক্তির কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে হবে। সরকারি মার্কেটগুলোতে বিনা জামানতে দোকান বরাদ্দ করতে হবে। এসএমই এর মাধ্যমে প্রতিবন্ধীদের বিভিন্ন কাজের সুযোগ প্রদান করতে হবে, প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জন্য চাকরির শর্ত শিথিল ও পেশাগত দক্ষতা উন্নয়নে সহায়ক পরিবেশ নিশ্চিত করতে হবে, কর্পোরেট সেক্টরে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের চাকরির ব্যবস্থা করতে হবে, যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর, মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর ও অন্যান্য কারিগরি প্রতিষ্ঠান সমূহ যে সকল প্রশিক্ষণ প্রদান করে থাকে সেখানে যাতে প্রতিবন্ধীরা সহজে প্রশিক্ষণ নিতে পারে সে ব্যবস্থা করতে হবে।

ফরিদপুরের প্রেসক্লাব সভাপতি কবিরুল ইসলাম সিদ্দিকীর সভাপতিত্বে সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন আস্থা প্রতিবন্ধী নারী পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সুমি আক্তার।

এ সময় হ্যান্ডিক্যাপ ইন্টারন্যাশনালের প্রজেক্ট ম্যানেজার মো. রাশেদুল ইসলাম, আস্থা প্রতিবন্ধী নারী পরিষদের সভাপতি নূসরাত আক্তার মিনিসহ বিভিন্ন প্রতিবন্ধী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

কেএফ