মুনের অনুরোধে দক্ষিণ সুদান যাচ্ছে বাংলাদেশি শান্তিরক্ষীরা

santi-missionসংঘাতপূর্ণ দক্ষিণ সুদানে শান্তি মিশনে যোগ দিতে এ সপ্তাহেই এক ব্যাটালিয়ন বাংলাদেশি সৈন্য যাচ্ছেন। জাতিসংঘের মহাসচিব বান কি মুনের অনুরোধে বাংলাদেশ ছাড়ছে সৈন্যরা।

জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত এ কে এ মোমেন জানান, আগামি ২৮ ডিসেম্বরের মধ্যে তাদের মিশনে রওনা হওয়ার কথা রয়েছে। সাজ-সরঞ্জামসহ বাংলাদেশি সৈন্যদের পৌঁছে দিতে ইতোমধ্যে জাতিসংঘ প্রয়োজনীয় পরিবহনের ব্যবস্থা করেছে বলে জানান তিনি।
জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি-মুন গত ২৪ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ফোন করে সেনা পাঠানোর অনুরোধ জানান। তাঁর অনুরোধ বাস্তবায়নের জন্য প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় ও সেনাবাহিনীকে এই নির্দেশ দেন সরকার।

দক্ষিণ সুদানে গত কয়েক সপ্তাহ ধরে বিদ্রোহী এবং সরকারি বাহিনীর মধ্যে সংঘর্ষে কয়েক হাজার লোক নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ।
১৯৮৮ সাল থেকে জাতিসংঘের অধীনে শান্তিরক্ষা মিশনে কাজ করে আসছে বাংলাদেশ। সেনা মোতায়েনের সংখ্যার বিচারে বর্তমানে এই মিশনে বাংলাদেশের অবদান দ্বিতীয় সর্বোচ্চ।

শান্তি মিশনের ওয়েবসাইটের সর্বশেষ তথ্য (নভেম্বর) অনুযায়ী, ১২০টি দেশের ৯৮ হাজার ২৬৭ জন শান্তিরক্ষী বিভিন্ন দেশে দায়িত্ব পালন করছেন, যাদের মধ্যে বাংলাদেশের শান্তিরক্ষীর সংখ্যা ৭ হাজার ৯৬৮ জন।

দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে এ পর্যন্ত ১১০ জন বাংলাদেশি শান্তিরক্ষীর মৃত্যু হয়েছে।
জাতিসংঘের মহাসচিবের মুখপাত্র ইরি কনেকো বলেছেন, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলার পর আফ্রিকান ইউনিয়ন কমিশনের চেয়ারপার্সন, ইথিওপিয়া, রুয়ান্ডা, মালাবি, তাঞ্জানিয়া, পাকিস্তান ও নেপালের রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানদের কাছেও সেনা সহায়তা চেয়ে বান কি মুন।

কেএফ/এআর