৩১ ডিসেম্বর কায়সারের বিরুদ্ধে শুনানির দিন ধার্য

20
kayser

kayserমানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় জামিনে থাকা জাতীয় পার্টির সাবেক কৃষি প্রতিমন্ত্রী সৈয়দ মোহাম্মদ কায়সারের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন না করার পক্ষে আসামিপক্ষের পরবর্তী শুনানির দিন আগামি ৩১ ডিসেম্বর ধার্য করা হয়েছে। আজ ট্রাইব্যুনাল ২ এর চেয়ারম্যান বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের নেতৃত্বে গঠিত তিন সদস্যের আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল এ শুনানির দিন ধার্য করেন।

বৃহস্পতিবার সকালে আসামিপক্ষের আইনজীবী রেজাউল করিম এই শুনানি করেন। শুনানিতে তিনি বলেন,সৈয়দ কায়সারকে এসএসসি পাশ ব্যক্তি বলা হয়েছে। তিনি এরশাদ সরকারের সময় তিন বারের মন্ত্রী ছিলেন। তার শিক্ষাগত যোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তোলা ঠিক না।

রেজাউল বলেন,কায়সারের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ (কোলাবরেটর অ্যাক্ট) দালাল আইনে বিচার হয়েছিল, তখন তিনি বেকসুর খালাস পেয়েছিলেন। তিনি সম্পূর্ণ নির্দোষ তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ ভিত্তিহীন। এক অপরাধে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে দুইবার বিচার হতে পারে না।

জানা যায়,এর আগে গত ১৭ ডিসেম্বর রাষ্ট্রপক্ষের প্রসিকিউশনের টিমের অন্যতম সদস্য প্রসিকিউটর রানা দাশ গুপ্ত কায়সারের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের পক্ষে শুনানি শেষ করেন। আজ শুনানিতে প্রসিকিউটর রানাদাসগুপ্ত ও মোহাম্মদ জাহিদ ইমাম এবং আসামীপক্ষে রেজাউল করিম ও আনোয়ার হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

গত ১১ নভেম্বর ট্রাইব্যুনালে সৈয়দ মোহাম্মদ কায়সারের বিরুদ্ধে হত্যা, গণহত্যা, নির্যাতন, অগ্নিসংযোগ ও মানবতাবিরোধী অপরাধের ১৮টি অভিযোগ দাখিল করেন প্রসিকিউশন।

গত ১০ নভেম্বর ট্রাইব্যুনালের রেজিস্টারের কাছে প্রসিকিউটর জেয়াদ আল মালুমের নেতৃত্বে প্রসিকিউশন টিম কায়সারের বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ দাখিল করেন।