ভারতে রাজনৈতিক দলগুলির রাজনৈতিক ইশতেহারে শিশুরা অবহেলিত কলকাতা

ভারতের রাজনৈতিক ইশতেহারে শিশুরা অবহেলিত । কারণ, ভোটে শিশুদের কোনো উপস্থিতি নেই। আগামি বছরে মে-জুন এ ভারতের সরকার নির্বাচন। ইতোমধ্যে নির্বাচনী প্রচারে নেমে পড়েছে রাজনৈতিক দলগুলি।
জনসভায় দুর্নীতি দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির খতিয়ান ধরে ধরে শাসক বিরোধীদলের নেতারা মানুষকে বোঝাচ্ছেন। কিন্তু কোনো রাজনৈতিক দলের ইশতেহারেই নেই শিশু শ্রম, শিশুদের যৌন নিগ্রহ, অপুষ্টি বা শৈশবেই স্কুল ছাড়ার প্রবণতার কথা । নেই আঠেরোর আগেই জোর করে বিয়ে বন্ধ করার অঙ্গীকার । শিশুদের অধিকার নিয়ে এবার সোচ্চার হলো কয়েকটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা । সব রাজনীতিকদের কাছে তাদের আবেদন, শিশুদের কথাও ভাবুন। একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন এ ব্যাপারে রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের কাছে স্মারকলিপি জমা দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে । তাতে স্বাক্ষর করবেন সাধারণ মানভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর রিপোর্ট বলছে, ভারতে প্রতি আট মিনিটে একজন শিশু নিখোঁজ হয় । বছরে প্রায় ৯৬ হাজার শিশু নিরুদ্দেশ হয়ে যায়। যার মধ্যে ৫৮% হদিস মেলে না। এবছর নিখোঁজ শিশুর সংখ্যায় শীর্ষে রয়েছে নয়াদিল্লি এবং অন্ধ্রপ্রদেশ।২০১২ সালে শিশু নিখোঁজের সংখ্যা ৬৫ হাজার শিশু। ২০১১ সালে প্রাথমিক স্তরেই স্কুল ছেড়েছে প্রায় ২৭% শতাংশ শিশু। প্রথম থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত ধরলে স্কুলছুট ৪৯.৩।  ছেলেদের ক্ষেত্রে তার পরিমাণ ৬.৯২% । মেয়েদের ক্ষেত্রে ৬.০৭%।

লাখ লাখ শিশু দোকান বাড়িতে শ্রমিকের কাজে যুক্ত। ক্রাই সংস্থার হিসেবে, ১২% শিশু শ্রমিক রয়েছে ভারতে। অপুষ্টির শিকার ২২% শিশু। ১৮ বছরের আগেই বিয়ে করতে বাধ্য হয় ৪৫% কিশোরী।

এআর