রাতারাতি কোটিপতি!

kotipoti_400গুজরাতের সানন্দের ছোট্ট একটি গ্রাম খোরজ। এই গ্রামকে এখন সবাই কোটিপতিদের গ্রাম নামেই চেনে। খোরজ নামে গ্রামটিকে আর কেউ ডাকে না। কারণ এই গ্রামে রাতারাতি কোটিপতি হয়েছেন ৪০০ জন, যাদের মধ্যে ১১৭ জনই মহিলা। সূত্র –টাইমস অব ইন্ডিয়া।
গ্রামের সবাই জমি দিয়েছেন কারখানার জন্য, ক্ষতিপূরণের টাকায় রাতারাতি বদলে গেছে কপালের রেখা। গুজরাট ইন্ডাস্ট্রিয়াল ডেভলপমেন্ট করপোরেশন সদ্য জমিদাতাদের হাতে মোট ৮৫০ কোটি টাকার চেক তুলে দিয়েছে।
কল্যাণী যাদব নামে এক মহিলা ১.৮৫ কোটি টাকার ক্ষতিপূরণ পেয়েছেন। তার মা লীলা ২.৪৩ কোটি টাকার ক্ষতিপূরণ পেয়েছেন। আবার তার বাবা রাম সিং ৩.৫ কোটি টাকার চেক পেয়েছেন।
জ্যোত্‍‌স্না চাওড়া নামের একজন জমির বদলে ১.২১ কোটির চেক পেয়েছেন। তিনি বলেন, আমার ছেলে চায় যে আমি একটা এসইউভি কিনি। কিন্তু আমি ভেবে-চিন্তে টাকা বিনিয়োগ করব। যাতে আমি নিজের সন্তানদের ভালো শিক্ষা দিতে পারি। অর্থ আমাকে দায়িত্ব পুরো করার সামর্থ্য দিয়েছে।
এই গ্রামের ১৫ জন মহিলা এক কোটি টাকারও বেশি এফডি করেছে। অধিকাংশ এই অর্থ সমাজ এবং সম্প্রদায়ের উন্নয়নে বিনিয়োগ করতে চান।
২.৩১ কোটি টাকার ক্ষতিপূরণপ্রাপ্ত সেজল মোদী বলেন, প্রাপ্ত অর্থের একটি অংশ আমি কমিউনিটি হল এবং সড়ক নির্মাণে ব্যয় করতে চাই।