উন্নয়নে অনুপ্রেরণা জোগায় সংস্কৃতি : গভর্নর
মঙ্গলবার, ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » পুঁজিবাজার

উন্নয়নে অনুপ্রেরণা জোগায় সংস্কৃতি : গভর্নর

Bangladesh_Bank_23.11.13বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ড. আতিউর রহমান বলেছেন, উন্নয়ন বলতে কেবল রাস্তা ঘাট বা অবকাঠামোগত উন্নয়নকেই বোঝায় না। শুধু অর্থ দিয়ে উন্নয়ন হয় না। সব ধরনের উন্নয়নের অনুপ্রেরণা দেয় সংস্কৃতি।

শনিবার বিকেলে রাজধানীর রূপসী বাংলা হোটেলে ‘বাংলাদেশ ব্যাংক-এর শিল্পকলা সংগ্রহ প্রকাশনা উৎসব’ এ তিনি এ কথা বলেন।

তিনি কেন্দ্রীয় ব্যাংককে সাংস্কৃতিক সংগ্রহশালায় পরিণত করার জন্য ব্যাংক কর্মকর্তাদের প্রতি আহ্বান জানান।

 

অনুষ্ঠানে অধ্যাপক মুনতাসির মামুন বলেন, “আমাদের দেশে শিল্প কর্ম সম্পর্কে পড়াশোনা করার মতো কোনো সংগ্রহশালা গড়ে ওঠেনি। ফলে এ বিষয়ে লেখালেখির অভাবও রয়েছে।

তিনি বাংলাদেশ ব্যাংকের মুদ্রা জাদুঘরের পাশাপাশি একটি চিত্রকলার প্রদর্শনীর জন্য একটি সংগ্রহশালা গড়ে তোলার প্রস্তাব করেন। এছাড়া এ সম্পর্কিত একটি বিভাগ প্রতিষ্ঠার এবং একটি  নীতিমালা করার প্রস্তাব ও দেন।

 

এ অনুষ্ঠানের প্রকাশনার ওপর আলোচনা করেন মহিউদ্দিন খালেদ। তিনি বলেন, “আমাদের মুদ্রা থেকে বাংলার নারী, হরিণ, প্রকৃতি হারিয়ে যাচ্ছে তার অন্যতম কারণ রাজনীতি। পৃথিবীর অন্যান্য দেশের মুদ্রায় তার সংস্কৃতিকে তুলে ধরা হয়। কিন্তু আমাদের মুদ্রায় এক সময় এসব প্রতিকৃতি থাকলেও এখন তা আর নেই।”

 

শিল্পী হাসেম খান বলেন, “বঙ্গবন্ধুর হত্যার পর আলবদর, রাজাকাররা আমাদের সংস্কৃতি ধ্বংসের চেষ্টা করেছিল। তারা আমাদের সংস্কৃতিতে বিভিন্ন ভাষা এবং অন্য সংস্কৃতি প্রবেশ করানোর চেষ্টা করেছে।

 

শিল্পী মুস্তাফা মনোয়ার বলেন, যে কোনো আন্দোলনের পেছনে রয়েছে সংস্কৃতির প্রণোদনা। শুধু বিনোদন নয় এ সংস্কৃতি জাতির সত্তাকে এগিয়ে নিয়ে যায়। লিখিত ইতিহাসের চেয়ে একটি ভালো শিল্প বেশি কথা বলে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, কেন্দ্রীয় ব্যাংকসহ বিভিন্ন ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। এছাড়া দেশের প্রখ্যাত শিল্পীরাও এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

 

এসএই/এআর

 

এই বিভাগের আরো সংবাদ