আমরা কোনো আপস করবো নাঃ সাজেদা

Sajeda-chawdhuryযুদ্ধাপরাধী ও জামায়াতের সঙ্গে আওয়ামী লীগ কোনো আপোস করবেনা বলে সাফ জানিয়ে দিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতি মন্ডলীর সদস্য ও সংসদ উপনেতা সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী।

তিনি বলেন, যারা মানুষ হত্যা করেছে, ইজ্জত নষ্ট করেছে সম্পদ লুণ্ঠন করেছে তাদেরকে আর ক্ষমা করা হবে না। তাদের বিচার হবেই হবে। তাদের সাথে আমাদের কোন আপোষ নেই।

মঙ্গলবার বিকেলে বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ের সামনে কেন্দ্রীয় ১৪ দলের প্রতিবাদ সমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ সব কথা বলেন।

সাজেদা বলেন, নির্বাচন নিয়ে অনেক টালবাহান হচ্ছে। তবে আমরা বলতে চাই ৫ জানুয়ারি এই নির্বাচন হবেই। কোনো টালবাহানাই কাজে আসবে না। আমরা দেশ স্বাধীন করেছি। দেশ আমরাই রক্ষা করব। কোনো রাজাকার দেশ ধংস করতে পারবে না।

সমাবেশে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য আমির হোসেন আমু বলেন, যুদ্ধাপরাধীদের বাচানোর চেষ্টায় খালেদা জিয়াকে কাঠ গড়ায় দাড়াতে হতে পারে। তাই খালেদা জিয়াকে বলতে চাই যুদ্ধাপরাধীদের বাচানোর জন্য আর আন্দোলন করবেন না। না হলে তাদের সহযোগীতা করার জন্য আপনাকেও কাঠ গড়ায় দাড়াতে হবে।

তিনি বলেন, আমরা খালেদা জিয়ার সঙ্গে মিলে জাতীয় পার্টির বিরুদ্ধে আন্দোলন করেছিলাম। কিন্তু সেই দিন মানুষ হত্যা করিনি। খালেদা জিয়া আপনার বিরুদ্ধেও আওয়ামী লীগ আন্দোলন করেছে। সেই আন্দোলনে আগুন দেয়া হয়নি। কোনো বিএনপি নেতাকে হত্য করা হয়নি। আজকে মানবতা বিরোধীদের কাঠ গড়ায় দাড় করানো হয়েছে বলেই আপনি মানুষ হত্য করছেন।

বিএনপির আন্দোলন গণতান্ত্রিক নয় বলে দাবি করে তিনি বলেন, এ আন্দোলন নির্বাচনের জন্য নয়। এই আন্দোলন যুদ্ধাপরাধীদের রক্ষা করার আন্দোলন। জাতীয় পাতাকাকে ধংস করার আন্দোলন।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য ও সংসদ উপনেতা সৈয়দা সাজেদা চৌধুরীর সভাপতিত্বে সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন দলের আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য সুরঞ্জিত সেন গুপ্ত, ড. আব্দুর রাজ্জাক, সভাপতিমন্ডলীর সদস্য মোহম্মদ নাসিম, সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়–য়া, ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন, কমিউনিস্ট কেন্দ্রের আহ্বায়ক ডা. ওয়াজেদুলন ইসলাম খান প্রমুখ।

ইকা/এআর