সম্পদ বাড়ানোর প্রতিযোগীতায় আওয়ামী লীগ: হাফিজ
বুধবার, ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » রাজনীতি

সম্পদ বাড়ানোর প্রতিযোগিতায় আওয়ামী লীগ: হাফিজ

hafizআওয়ামী লীগ গণতন্ত্র রক্ষার জন্য নয় সম্পদ বাড়ানোর প্রতিযোগীতায় নেমেছে বলে অভিযোগ করছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মেজর(অব:) হাফিজ উদ্দিন।

সোমবার বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দল আয়োজিত “বিজয়ের মাসে বন্দী গণতন্ত্র ও বিপন্ন মানবতা” শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এ অভিযোগ করেন।

হাফিজ বলেন, ইউরোপিয় ইউনিয়ন, কমেনওয়েলথ ও যুক্তরাষ্ট্র নির্বাচনে তাদের পর্যবেক্ষক পাঠাবেনা বলে স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন। কারণ তারা বুঝতে পেরেছেন যে, যেখানে ১৫৪ জন প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় জয়ী হয়েছেন সেখানে সুষ্ঠু নির্বাচন হতে পারে না। তাই তারা বাংলাদেশে পর্যবেক্ষক না পাঠিয়ে নির্বাচনকে বয়কট করেছে।

আওয়ামী লীগের হাতে গণতন্ত্র নিরাপদ নয় উল্লেখ করে হাফিজ বলেন, এখনও দশম সংসদ নির্বাচন হয়নি অথচ তারা একাদশ নির্বাচন নিয়ে কথা বলছে। আসলে তারা নির্বাচন নিয়ে জনগণের সাথে তামাশা করছে।

রাজপথে নামতে প্রস্তুত উল্লেখ করে হাফিজ বলেন, ৭১ সালে মাতৃভূমি রক্ষার্থে যুদ্ধে গিয়েছিলাম জীবনের শেষ সময়ে ডাক আসলে গণতন্ত্র রক্ষায় আবারও রাস্তায় আসবো। তবুও যে কোনো উপায়ে হোক ৫ তারিখের নির্বাচন প্রতিহত করা হবে।

ব্রাক বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. পিয়াস করিম বলেন,  ‘দেশে নির্বাচনের নামে প্রহসনের নাটক হচ্ছে। আর এই প্রহসনের নির্বাচন নাটকের শেষ দৃশ্য প্রচারিত হবে ৫ জানুয়ারী। তবুও এর বিরুদ্ধে কেউ কথা বলতে পারছেনা। কথা বললে হামলা পুলিশী নির্যাতন আর সন্ত্রাসী হামলা চালানো হয়।

এ সময় তিনি বলেন, আমরা আজ লড়াইয়ের ‌শেষ প্রান্তে। এই লড়াইয়ে আমাদের বিজয় অনিবার্য। দেশে নির্বাচন না হতেই ১৫৪ জন এমপি নির্বাচিত। যা পৃথিবীর কোথাও হয়নি।

সেনাবাহিনীদের উদ্দেশ্য করে পিয়াস করিম বলেন, বাংলাদেশের সেনাবাহিনী অত্যন্ত চৌকস। তারা শেখ হাসিনার পক্ষ নিয়ে কখনও জনগণের বিরুদ্ধে অস্ত্র ধরবেনা। তারা দেশের শান্তি রক্ষার্থেই কাজ করবে।

অনুষ্ঠানে কল্যাণ পার্টির চেয়্যারমান মেজর জেনারেল সৈয়দ মো: ইব্রাহীম বলেন, যারা আজ মুক্তিযুদ্ধের ধারক-বাহক বলে নিজেদের দাবি করে তাদের অনেকেই মুক্তিযুদ্ধ করেনি এবং মুক্তিযুদ্ধ দেখেওনি।

সংগঠনের সভাপতি ইশতিয়াক আজীজ উলফার সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন, সংগঠনের সহ সভাপতি শাহাব উদ্দিন রেজা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাদেক আহমেদ খান, যুগ্ম সাংঘঠনিক সম্পাদক নুরুল ইসলাম প্রমুখ।

জেইউ/

এই বিভাগের আরো সংবাদ