এবার কৃত্রিম হৃদয় প্রতিস্থাপনে সফল চিকিৎসা-বিজ্ঞানীরা

চিকিৎসা বিartifitial_heartজ্ঞানের ইতিহাসে এই প্রথম কৃত্রিম হৃদয় প্রতিস্থাপনে সফল হলেন বিজ্ঞানীরা। সম্প্রতি এক পুরুষ রোগীর দেহে  অস্ত্রপাচারের মাধ্যমে এই কৃত্রিম হৃদয়প্রতিস্থাপন করতে সফল হন তারা। এই অস্ত্রপচার সম্পন্ন হয়েছে প্যারিসের জর্জ পমপিডো হাসপাতালে। খবর- ডেইলি মেইল।

চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, পুরো অস্ত্রোপচারটি অত্যন্ত দক্ষতার সাথে সম্পন্ন হয়েছে। রোগী এখনো নিবিড় পর্যবেক্ষণে রয়েছেন। সার্বক্ষণিক তার অবস্থা নিরীক্ষা করছেন একাধিক চিকিৎসক।

কারম্যাট বায়োমেডিকেল বিভাগের প্রধান মার্সেলো কনভিটি জানান, প্রথমবারের মতো মানবদেহে সফলভাবে এই কৃত্রিম হৃদপিন্ড স্থাপন করতে পেরে আমরা অনেক খুশি।

কনভিটি জানান, কৃত্রিম এই হৃদপিন্ড মানবদেহের একটি হৃদপিন্ডের তুলনায় তিনগুন ভারী। তবে এই হৃদপিন্ড নিয়ে  পাঁচ বছরের মতো বাঁচার সুযোগ পাবেন রোগী।

শল্যচিকিৎসক এলিয়ান কারপেন্টার বলেন, হৃদরোগীকে একটি স্বাভাবিক জীবন দেবে নতুন এই সৃষ্টি। কৃত্রিম হৃদযন্ত্র পূর্বের চেয়ে সচল হবে বেশি এবং ক্লট জমবে কম।

জানা গেছে, এই অস্ত্রোপচার করতে সবমিলিয়ে খরচ হয়েছে এক লক্ষ পঞ্চাশ হাজার পাউণ্ড।

কৃত্রিম হৃদযন্ত্রটি বানিয়েছে  ইউরোপিয়ান এরোনটিকস ডিফেন্স এণ্ড স্পেস কোম্পানি। বায়োলজিক্যাল উপাদান ও সেন্পর দিয়ে তৈরি করা হয়েছে এই কৃত্রিম হৃদযন্ত্র। ঘড়ির মত ক্ষুদ্র লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারির শক্তিতে হৃদযন্ত্রটি চলবে।

তিনি আরও জানান, সাধারণত নারীদের তুলনায় পুরুষের হার্ট বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হয়, কৃত্রিম এই যন্ত্রটির আকার এতো বড় হওয়ায় তা পুরুষের জন্য ৮০ শতাংশ এবং ২০ শতাংশ নারীদের জন্য ফিট থাকে।ভারত, চিনে (আকারে) ছোট নারীদের কথা ভেবে ভবিষ্যতে ছোট আকারের যন্ত্র তৈরি করবে তারা।