বিশ্বকাপেও পাতানো ম্যাচের আশঙ্কা!
রবিবার, ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » খেলাধুলা

বিশ্বকাপেও পাতানো ম্যাচের আশঙ্কা!

match fixingইতালিতে চলছে ম্যাচ পাতানো নিয়ে ব্যাপক তোলপাড়। বিশ্বকাপজয়ী মিডফিল্ডার গেনারো গাত্তুসোসহ বেশ কয়েকজন ফুটবলার ম্যাচ পাতানোয় জড়িত বলে সন্দেহ করা হচ্ছে। এজন্য গাত্তুসোসহ বর্তমান ও সাবেক ফুটবলারদের বাড়ি বাড়ি তল্লাসী অভিযান চলছে। গ্রেপ্তার করা হয়েছে ৫৪ জন ফুটবলারকে। আশংকা করা হচ্ছে, ব্রাজিল বিশ্বকাপেও ম্যাচ পাতানো হতে পারে!

সোমবার বিচারক গুইডো সালভানির অনুমতি নিয়ে গেনারো গাত্তুসোর বাড়ি তল্লাশি করা হয়। সালভানি জানিয়েছেন, ম্যাচ পাতানোর পেছনে খুব বড় একটি চক্র কাজ করছে, ২০১৪ বিশ্বকাপেও ম্যাচ পাতানো হতে পারে!

ইটালির ফুটবলের সঙ্গে ম্যাচ পাতানো কেলেঙ্কারির সম্পর্কটা দীর্ঘ দিনের। ২০০৯ সাল থেকে ২০১২ পর্যন্ত ইতালিতে মোট ৯০টি ম্যাচ পাতানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। সর্বশেষ বড় কেলেঙ্কারির খবর এসেছিল ২০০৬ সালে। সেবার সিরি-এ’র পাঁচটি ক্লাবের বিরুদ্ধে পাতানো ম্যাচ খেলার অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছিল, তখনকার চ্যাম্পিয়ন জুভেন্টাসকে আগের দুটি শিরোপা কেড়ে নিয়ে নামিয়ে দেয়া হয়েছিল সিরি-বি থেকে।

তারপরও বেশ কয়েকবারই ইটালির ফুটবল খবরে এসেছে ম্যাচ পাতানোকে কেন্দ্র করে। বিষয়টি আবার কালো ছায়া ফেলেছে ইতালির ফুটবলে। তদন্তে বেরিয়ে এসেছে নতুন খবর। বলা হচ্ছে, এমন কাণ্ডে ইতালিকে ২০০৬ বিশ্বকাপ জেতানো গেনারো গাত্তুসোও জড়িত ছিলেন।

এ কারণে গাত্তুসোর বাড়িতে তল্লাশিও চালানো হয়েছে। ১৯৯৯ থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত এসি মিলানের হয়ে খেলেছেন গাত্তুসো। সুইজারল্যান্ডের সিয়ন ক্লাবের হয়ে খেলে পেশাদার ক্যারিয়ারে ইতি টানা ৩৫ বছর বয়সি এ মিডফিল্ডার হালে কোচ হিসেবে আছেন সিরি-বি’এর ক্লাব পালের্মোর সঙ্গে। ম্যাচ পাতানোয় জড়িত সন্দেহে তার বাড়ি তল্লাশি করায় গাত্তুসো বলেছেন, আমি অপমানিত বোধ করছি। আমি জীবনে কখনো কোনো রকমের কেলেঙ্কারিতে জড়াতে চাইনি।

এই বিভাগের আরো সংবাদ